১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে খালেদার বক্তব্য সঠিক ॥ ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ এবার মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার বক্তব্যের সঙ্গে সুর মিলালেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। খালেদা জিয়ার বক্তব্য সমর্থন করে এতদিন দলের কিছু নেতা কথা বললেও মির্জা ফখরুলসহ দলের অধিকাংশ নেতাই ছিলেন নীরব।

সোমবার বিকেলে সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ব্রিটিশ ‘ল’ স্টুডেন্ট এলায়েন্স নামের একটি সংগঠন আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ফখরুল বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে খালেদা জিয়া সঠিক বক্তব্য দিয়েছেন। খালেদা জিয়াকে রাজনীতির মাঠ থেকে সরাতে তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা দেয়া হয়েছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, যিনি তিনবার প্রধানমন্ত্রী ছিলেন, নয় বছর গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছেন, রাষ্ট্রকে রক্ষা করেছেন তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা দেয়া হয়েছে। এ আওয়ামী লীগ সরকারের অবস্থা একদিন ইন্দিরা গান্ধীর সরকারের মতো হবে। তিনি বলেন, প্রাসঙ্গিকভাবে খালেদা জিয়া সঠিক কথা বলেছেন। তার বক্তব্য বিকৃত করে তাকে হয়রানি করার জন্য মামলা দেয়া হয়েছে। সরকারকে উদ্দেশ করে ফখরুল বলেন, অবিলম্বে সকল রাজনৈতিক দলের সঙ্গে কথা বলে অবাধ ও সুষ্ঠু জাতীয় নির্বাচনের ব্যবস্থা করে শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের রাস্তা বের করুন। আর সেটাই হবে দেশের মানুষের জন্য শুভ ও কল্যাণকর। তিনি বলেন, আমরা ক্ষমতায় জেতে চাই না, তবে বলতে চাই, এমন এক উপায় বের করা হোক যাতে দেশে গণতন্ত্র ফিরে আসে।

সরকারের সমালোচনা করে ফখরুল বলেন, এ সরকার বিরোধী দল ও রাজনীতিশূন্য করে দেশে একদলীয় শাসন কায়েম করতে চায়। তবে এর ফল ভাল হবে না। তিনি বলেন, দেশের সকল শ্রেণী-পেশার মানুষ বলছে এই মুহূর্তে একটি ইনক্লুসিভ নির্বাচন দরকার যার মাধ্যমে গণতন্ত্র ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হবে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ কিছু না পেলে মিথ্যা প্রচার করে।

ফখরুল বলেন, বার বার এদেশের মানুষ আন্দোলনের মাধ্যমে তাদের অধিকার আদায় করে নিয়েছে। এবারও একইভাবে তারা অধিকার আদায় করবে। তিনি বলেন, সবাই এ সরকারকে কর্তৃত্ববাদী বলছে। ভারতীয় এক সাংবাদিক বর্তমান সরকারকে ভারতের ইন্দিরা গান্ধীর সরকারের সঙ্গে তুলনা করছেন। ইন্দিরা গান্ধী একটা বিরোধী দলও তৈরি করতে পারেননি। ফলে পরবর্তী নির্বাচনে তিনি জামানত হারান। এদেশে সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগের অবস্থাও ইন্দিরা গান্ধীর সরকারের মতো হবে।

ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, দেশের মানুষ এখন নিরাপদ নয়। দেশের গণতন্ত্র বিপন্ন। একবছরে বিনাবিচারে ছয় শ’র বেশি মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। ৪৪০ জন গুম হয়েছে। ১৭ হাজার মামলায় ৪ লাখ আসামি করা হয়েছে।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি সুলতানা রাজিয়া শাওনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এ্যাডভোকেট খন্দকার মাহাবুব হোসেন, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহাবুব উদ্দিন খোকন, মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার নাসির উদ্দিন অসীম, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট শিরিন সুলতানা প্রমুখ।

২০ দলীয় জোটের মহাসচিবদের সংবাদ সম্মেলন আজ ॥ আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনসহ দেশের সার্বিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি তুলে ধরতে আজ মঙ্গলবার ২০ দলীয় জোটের মহাসচিবদের সংবাদ সম্মেলন। বেলা ১১টায় রাজধানীর ফটো জার্নালিস্ট এ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে বলে জানা গেছে।