২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ছাত্রছাত্রীসহ নিহত আট

  • সড়ক দুর্ঘটনা

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ সোমবার কয়েকটি জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় স্কুলছাত্রীসহ নিহত হয়েছে আটজন। আহত হয় ২১ জন। স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতাদের পাঠানো খবর :

সাতক্ষীরা ॥ দেবহাটার বহেরা এলাকায় বাস চাপায় গুরুতর আহত স্কুলছাত্রী সুমাইয়া খাতুন খুলনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে। এদিকে আহত আমেনা খাতুনের অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল থেকে খুলনা হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহত সুমাইয়া খাতুন বহেরা উত্তর পাড়ার মিঠুর মেয়ে এবং আহত আমেনা খাতুন হিরারচক গ্রামের আরশাদ আলীর মেয়ে। এদিকে দুই ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে এমন খবরে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী বাসটিতে অগ্নিসংযোগ করে এবং রাস্তা অবরোধ করে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয়। ঘটনাটি ঘটে সোমবার সকাল সাড়ে ৯টায় সাতক্ষীরা-কালিগঞ্জ সড়কের বহেরা এলাকায়। দুটি বাস এক অপরকে ওভারটেক করার ঘটনায় এই ঘটনা ঘটে।

বাগেরহাট ॥ শরণখোলায় অটোভ্যানে শাড়ির আঁচল পেঁচিয়ে গৃহবধূ কাকতি রানী (৩০) নিহত হয়েছেন। সোমবার দুপুরে ছেলে অমিতাভের বই কিনতে রায়েন্দা বাজারে যাওয়ার পথে শরণখোলা-মোড়েলগঞ্জ বাইপাস সড়কের খাদা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত কাকতি রানী মালিয়া রাজাপুর গ্রামের অমল চন্দ্র বড়ালের স্ত্রী।

অপরদিকে কচুয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এসএম মাহফুজুর রহমানের বাবা ও ভাই সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। সোমবার দুপুরে বাঁধাল ইউনিয়নের বিছট এলাকায় বাগেরহাট-মোরেলগঞ্জ সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- শেখ আনোয়ার হোসেন (৭৮) ও শেখ হুমায়ুন কবির (৪০)। স্থানীয়রা জানান, দুপুরে শেখ আনোয়ার হোসেন ও তার ছেলে হুমায়ুন কবির মোটরসাইকেলে করে কচুয়া থেকে মোরেলগঞ্জে যাচ্ছিলেন। পথে ব্যাটারিচালিত ভ্যানের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এ সময় স্থানীয়রা আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাদের দু’জনকে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানের কর্তব্যরত চিকিৎসক দুজনকেই মৃত ঘোষণা করেন। অপর আহত অটো ভ্যানের চালক ও ২ যাত্রীকে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।

ঈশ্বরদী ॥ ঈশ্বরদী-পাবনা মহাসড়কে বালু বোঝাই ট্রাকের চাপায় পিষ্ট হয়ে করিমন চালক নায়েব আলী (৪৫) নিহত ও দুই যাত্রী আহত হয়েছে। সোমবার সকালে ঈশ্বরদীর কালিকাপুর বাজারে এ ঘটনাটি ঘটে। নায়েব আলী দাশুড়িয়া ইউনিয়নের কালিকাপুর ডিলুনগর গ্রামের মৃত তৈয়জুদ্দিনের ছেলে।

যশোর ॥ যশোরে যাত্রীবাহী বাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে দু’জন নিহত ও অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। সোমবার সকালে যশোর-মাগুরা মহাসড়কের লেবুতলা ভাটার আমতলা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলো সালমা সুলতানা শেলী (৩২)। বাড়ি চট্টগ্রামের হাজীপাড়া একসেস রোড আগ্রাবাদ, ডবলমুরিং চট্টগ্রাম। আর প্রকাশ মজুমদার। বাড়ি জানা যায়নি। আহতরা হলো নিহত সালমার স্বামী জাহিদ হোসাইন, সালমার দেবর জাকির হোসেন, চট্টগ্রামের রাউজানের জুলফিকার আলী, তার কন্যা শামিমা সুলতানা, রাউজানের দক্ষিণ সুলতারপুরের সুজিত চৌধুরী, রাউজানের আবুল কালাম, তার স্ত্রী সাজেদা বেগম, কন্যা সহেদা সিদ্দিকা, ঢাকার আনোয়ার, আগ্রাবাদের শফিউল আলম, প্যারাডাইস মোড়ের সৈয়দ আজগর আলী, চট্টগ্রাম এবিবিএস এলাকার রিজভী, বাউফলের আবুল কালাম। তাদের যশোর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বরিশাল ॥ জেলার আগৈলঝাড়া-বাশাইল সড়কের রাজিহার ইউনিয়নের বাশাইল কলেজ সংলগ্নস্থানে সোমবার দুপুর টেম্পো উল্টে যাত্রী সঞ্জিত চন্দ্র (১৪) হয়েছে। সে বাশাইল গ্রামের সমীর টাকার ছেলে।

জানা গেছে, টেম্পোর নিচে পড়ে সঞ্চিত গুরুতর আহত হলে তাকে উপজেলা হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।