১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঝালকাঠিতে গৃহকর্মী স্কুল ছাত্রীর ধর্ষণ মামলা

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝালকাঠি ॥ ঝালকাঠির নলছিটি শুকতার বিকস সহ একাধিক প্রতিষ্ঠানের মালিক বৃত্তশালী কবির হোসেন জমাদ্দারের বিরুদ্ধে ঝালকাঠির নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ ট্রাইবুনাল আদালতে ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের হয়েছে। মঙ্গলবার দায়ের করা অভিযোগটি এজাহার হিসেবে গ্রহণ করার নির্দেশ দিয়ে আদালতের বিচারক নলছিটি থানায় প্রেরণ করেছে। কবির হোসেন জমাদ্দারের নলছিটি উপজেলার গোদন্ডা গ্রামের বাড়ীতে গৃহকর্মী ও ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী (খুকুমনি) বাদি হয়ে এই অভিযোগ দায়ের করেছে।

ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার গোদন্ডা গ্রামের বাসিন্দা কবির জমাদ্দারের প্রতিবেশী শুকতারা বিকস ফিল্ড এর কাঠ সরবরাহকারী প্রতিবেশি আব্দুল মন্নান খানের কন্যা ভিকটিম (খুকুমনি) অভিযোগ করেছে, ৪ বছর পূর্বে তার পিতা আব্দুল মন্নান খানকে ভিকটিমের লেখাপড়া ও ভবিষ্যতে বিবাহ দেয়ার কথা বলে কবির জমাদ্দার ভিকটিমকে তার বাড়িতে গৃহকর্মী হিসেবে নিয়ে আসে। শারীরিক পূর্ণতা আসা শুরু করলে কবির জমাদ্দারের নজর তার উপর পরে। স্ত্রীকে ঢাকায় পাঠিয়ে দিয়ে ২০১৫ সালের ১৭ জুলাই রাতে কবির জমাদ্দার ভিকটিমকে পিস্তলের ভয় দেখিয়ে তাকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে এবং এই কথা কাউকে প্রকাশ করলে সে সহ তার বাবা-মাকেও বস্তাবন্দিকরে হত্যা করার হুমকি দেয়। এই ঘটনার পর থেকে মাসের পর মাস কবির জমাদ্দার ভিকটিমকে ধর্ষন করতে থাকে। একপর্যায়ে ভিকটিম অন্তসত্তা হলে তাকে বরিশাল নিয়ে গর্ভাপাত ঘটায়। গত ৮ জানুয়ারী ২০১৬ তারিখ ভিকটিমের মা অসুস্থ হয় এবং তাকে দেখতে এসে সে কবির জমাদ্দারের বাড়ীতে ফিরে যায়নি এবং তার উপরে নির্যাতনের বিষয়টি পরিবারের কাছে ফাঁস করে দেয়।

অন্যদিকে কবির জমাদ্দার গত ৩১ জানুয়ারী ২০১৬ তারিখ ভিকটিম ও তার পরিবারের কয়েক জনকে আসামী করে নলছিটি থানায় ৪ লাখ টাকার চুরির মামলায় দায়ের করে। ভিকটিম আদালতে আত্মসমার্পন করে এবং ১ সপ্তাহ হাজত বাস করে জামিনে মুক্তি পায়।