১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দুই নারীসহ তিন খুন

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে বগুড়ায় খুন হয়েছে এক যুবক। পাবনা ও কক্সবাজারে স্বামীর হাতে খুন হয়েছে দুই নারী। স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতাদের পাঠানো খবর।

বগুড়া অফিস ॥ সোমবার রাতে বগুড়ায় শহরের কলোনি এলাকায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে শাহিন আলম (৩৫) খুন হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ দুই নারীসহ তিন জনকে আটক করেছে। এরা হলো আকতার, ফিরোজা ও রোজী।

পুলিশ জানায়, কলোনি চকফরিদ এলাকায় এক বিঘা জমি নিয়ে একই এলাকার পাইলট ও আকতারের মধ্যে বিরোধ চলছিল। সোমবার রাত সোয়া ১০টার দিকে ওই এলাকার জামিল মাদ্রাসা সংলগ্ন গলিতে দু’পক্ষের মধ্যে বাগ্বিত-া হয়। এ সময় শাহিন সেখানে গেলে তাকে ছুরিকাঘাত করা হয়। বগুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে সে মারা যায়।

পাবনা ॥ সদর উপজেলার হাড়িয়াবাড়ি গ্রামে এক সন্তানের জননী শম্পা খাতুনকে (২৫) শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে যৌতুকলোভী পাষ- স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন। সোমবার রাত সাড়ে ১২টার সময় এ হত্যাকা- ঘটেছে। নিহত শম্পা সদর উপজেলার কোদালিয়া গ্রামের নুরুল ইসলামের মেয়ে। নিহতের দাদা আলাউদ্দিন সরদার জানান, পাঁচ বছর আগে সদর উপজেলার মালঞ্চী ইউনিয়নের হাড়িয়াবাড়ি গ্রামের মোস্তফা মিয়ার ছেলে জাহিদ হোসেনের সঙ্গে শম্পার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবিতে মাঝে মধ্যেই শম্পাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছিল জাহিদ ও তার বাড়ির লোকজন। সোমবার রাতে জাহিদ ও তার পরিবারের লোকজন শম্পাকে বাপের বাড়ি থেকে টাকা আনার জন্য চাপ দেয়। শম্পা তাদের কথায় রাজি না হওয়ায় সবাই মিলে শম্পাকে বেধড়ক মারপিট শেষে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। সকালে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশ মঙ্গলবার সকালে শম্পার লাশ উদ্ধার করে।

কক্সবাজার ॥ রামুতে স্ত্রীকে গলাটিপে হত্যা করেছে লম্পট স্বামী। রামু খুনিয়াপালং কেচুবনিয়া এলাকায় মঙ্গলবার ভোরে বর্বরোচিত এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সামসুন্নাহার (২৫) স্থানীয় আবদুস সালামের স্ত্রী। নিহত গৃহবধূর পৈত্রিক বাড়ি উখিয়া মধ্যম হলুদিয়া গ্রামে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত স্বামী পলাতক রয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দারা জানায়, দীর্ঘদিন সামসুন্নাহারের সঙ্গে স্বামী আবদুস ছালামের ঝগড়া বিবাদ লেগেছিল। ওই বিরোধের জের ধরে স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা করে আবদুস সালাম।