১৭ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কলসিন্দুরের হ্যাটট্রিক শিরোপা জয়

কলসিন্দুরের হ্যাটট্রিক শিরোপা জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গিনেস বুকে উঠুক আর না উঠুক, এটাই এখন বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফুটবল টুর্নামেন্ট। আসলে দুটি টুর্নামেন্ট। একটি বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০১৫। আরেকটি বঙ্গমাতা বেগম ফজিলতুন্নেসা মুজিব গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০১৫। শেষের টুর্নামেন্টে মঙ্গলবার ফাইনালে জিতে টানা তৃতীয়বারের মতো চ্যাম্পিয়ন হলো ময়মনসিংহের ধোবাউড়া কলসিন্দুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। আর ছেলেদের বিভাগে প্রথমবারের মতো শিরোপা জিতেছে কক্সবাজারের পেকুয়ার রাজাখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। উল্লেখ্য, এটি ছিল মেয়েদের আসরের পঞ্চম ও ছেলেদের আসরের ষষ্ঠ আসরের ফাইনাল।

ছেলেদের আসরে এবার তৃতীয় হয়েছে ঢাকার ডেমরার দোলাইপাড় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। আর মেয়েদের আসরের তৃতীয় স্থান অধিকারী দল হলো ঝিনাইদহের শৈলকুপার দোহারো সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে টুর্নামেন্টে ছেলেদের ফাইনালে টাইব্রেকারে ৩-২ গোলে রাজাখালী হারায় দিনাজপুরের বীরগঞ্জের মরিচা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়কে। নির্ধারিত সময়ের খেলা শেষ হয় ১-১ গোলে। এরপর ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। অতিরিক্ত সময়ের ১০ মিনিটে কোন দলই গোল করতে না পারায় টাইব্রেকারে গড়ায় জমজমাট ফাইনালটি। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই রাজখালী স্কুলের অধিনায়ক অমিত গোল করে দলকে এগিয়ে (১-০) দেয়। কিছুক্ষণ পরই মরিচা স্কুলের অধিনায়ক বিপুল হেমরণ গোল করে দলকে সমতায় ফেরায় (১-১)।

একই মাঠে বিকেলে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে রাজশাহীর বাঘমারার খর্দ্দকৌড় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়কে ৩-১ গোলে হারিয়ে ময়মনসিংহের ধোবাউড়ার কলসিন্দুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন হয়। এর আগে ২০১৩ ও ২০১৪ সালেও চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল তারা।

ফাইনাল শেষে বিজয়ীদের মাঝে দুটি টুর্নামেন্টের পুরস্কার একসঙ্গে তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী মোঃ সালাউদ্দিন এবং যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট এবং বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট দুটি এবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে যথাক্রমে ষষ্ঠ ও পঞ্চমবারের মতো। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা ৬৩ হাজার ৫০৯ এবং খেলোয়াড় সংখ্যা ১০ লাখ ৭৯ হাজার ৬৫৩। বঙ্গমাতা প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট অংশগ্রহণকারী বিদ্যালয়ের সংখ্যা ছিল ৬৩ হাজার ৪৩১। অংশগ্রহণকারী খেলোয়াড় সংখ্যা ১০ লাখ ৭৮ হাজার ৩২৭।

২০১৫ সালের মেতে টুর্নামেন্ট দুটির প্রাথমিক পর্বের খেলা শুরু হয়। টুর্নামেন্ট দুটি ইউনিয়ন, উপজেলা, জেলা, বিভাগীয় পর্যায় থেকে জাতীয় পর্যায়ে অনুষ্ঠিত হয়। টুর্নামেন্ট দুটির জাতীয় পর্যায়ে চূড়ান্ত পর্বের খেলা শুরু হয় গত ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে। এই মাঠেই জাতীয় পর্যায়ের খেলা চলে সোমবার পর্যন্ত। মঙ্গলবার ক্রীড়া সাংবাদিকদের জন্য নির্ধারিত ১৫ নম্বর গেট (মিডিয়া গেট) গিয়ে ঢোকার সময় তাদের চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়। গেটে কর্তব্যরত স্পেশাল ব্রাঞ্চের এক কর্মকর্তা (এসবি) কার্ড দেখানোর পরও কয়েকজন সাংবাদিকের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন ও ঢুকতে বাধা প্রদান করেন। পরে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) এক কর্মকর্তা এসে সাংবাদিকদের ভেতরে ঢোকানোর ব্যবস্থা করেন।