২০ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রোমে রোমা পরীক্ষায় রিয়াল মাদ্রিদ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইউরোপীয় ক্লাব ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ের নকআউট পর্ব শুরু হয়েছে মঙ্গলবার রাত থেকে। ২০১৫-১৬ মৌমুসে আজ রাতে মাঠে নামছে চার দল। প্রি কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগের ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে ইতালিয়ান ক্লাব এএস রোমা ও স্পেনের রিয়াল মাদ্রিদ। রোমের স্টাডিও অলিম্পিকো স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচটি। আজ রাতে অপর ম্যাচে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে বেলজিয়ামের ক্লাব জেন্ট ও জার্মানির উফলসবার্গ।

গ্রুপ পর্বে রীতিমতো অপ্রতিরোধ্য ছিল রিয়াল মাদ্রিদ। ‘এ’ গ্রুপে অপরাজিত থেকে গ্রুপ সেরা হয় তারা। ছয় ম্যাচের পাঁচটিতে জয় ও একটিতে ড্র করে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ সেরা হয় আসরের সর্বোচ্চ ১০ বারের চ্যাম্পিয়নরা। নিজেদের শেষ ম্যাচেও প্রতিপক্ষকে গোলবন্যায় ভাসায়। সুইডিশ ক্লাব মালমোকে ৮-০ গোলে উড়িয়ে দেয়। ওই ম্যাচে ক্রিশ্চিয়ানো রোনল্ডো করেন রেকর্ড গড়া চার গোল। করিম বেনজেমা করেন হ্যাটট্রিক। রিয়াল লা লিগায় সর্বশেষ ম্যাচেও বড় জয় পেয়েছে। ওই ম্যাচেও রোনাল্ডো করেন জোড়া গোল। আজ রাতেও তাই সি আর সেভেনের দিকে দৃষ্টি থাকছে সবার। এই ম্যাচের মধ্য দিয়েই রিয়ালের হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে অভিষেক হচ্ছে কোচ জিনেদিন জিদানের। রাফায়েল বেনিতেজকে বরখাস্ত করার পর ইতোমধ্যে লা লিগায় জিদানের অধীনে রিয়াল বেশ কয়েকটি ম্যাচ খেলেছে। ফরাসী কিংবদন্তির অধীনে দাপুটে ফুটবলই খেলছে গ্যালাক্টিকোরা। ইউরোপ সেরার লড়াইয়ে কি হয় এখন সেটাই দেখার। কোচ জিদানের জন্য সুখবর, ইনজুরি কাটিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটিতে ফিরছেন তারকা ডিফেন্ডার মার্সেলো। ব্রাজিলিয়ান তারকা সোমবার দলের সঙ্গে অনুশীলন করেছেন। এতেই ফিটনেস টেস্টে উত্তীর্ণ হন ২৭ বছর বয়সী এ লেফট ব্যাক। তাই ইতালিতে উড়াল দিতে তার আর বাধা নেই। লা লিগায় স্বাগতিক গ্রানাডার বিপক্ষে ২-১ গোলে জয়ের রাতে কাঁধের ইনজুরিতে ভোগেন মার্সেলো। পুরো নব্বই মিনিট খেললেও ফিটনেসে ঘাটতি থাকায় পরের ম্যাচে ছিলেন দলের বাইরে। এ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে ম্যাচে ৪-২ গোলের জয় তুলে নেয় রিয়াল। রিয়াল কোচ জিনেদিন জিদান জয়ের বিষয়ে আশাবাদী হলেও সমীহ করছেন স্বাগতিক রোমাকে। তিনি বলেন, প্রতিপক্ষের মাঠে খেলা সবসময়ই কঠিন। আর ইতালির যে কোন ক্লাব প্রতিপক্ষের জন্য হুমকিস্বরূপ। জিততে হলে আমাদের সেরাটাই দিতে হবে। তবে জয় ছাড়া আমরা ভাবছি না কিছু। চ্যাম্পিয়ন্স লীগের গ্রুপ পর্বের পারফর্মেন্স নকআউট পর্বে রিয়ালকে উজ্জীবিত করবে বলে বিশ্বাস জিদানের। তখন রাফায়েল বেনিতেজের অধীনে দুর্দান্ত খেলেছে স্প্যানিশ পরাশক্তিরা। কিন্তু বেনিতেজ চাকরি খুইয়েছেন অন্যান্য আসরে বাজে পারফর্মেন্সের কারণে। জিদানের বিশ্বাস, দাপুটে ধারাবাহিকতা দল নকআউট পর্বেও ধরে রাখতে পারবে। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে রিয়াল ৮-০ গোলে উড়িয়ে দেয় মালমোকে। ওই ম্যাচে একাই চার গোল করেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। হ্যাটট্রিক করেছেন বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা করিম বেনজেমা। ম্যাচটিতে চার গোল করে নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যান সি আর সেভেন। চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ইতিহাসে গ্রুপ পর্বে সর্বোচ্চ গোলের নতুন রেকর্ড গড়েন তিনি। সেইসঙ্গে রিয়ালের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের প্রতিযোগিতায় একই ম্যাচে সবচেয়ে বেশি গোলের রেকর্ডটাও নিজের করে নেন। গ্রুপ পর্বে ছয় ম্যাচে এবারের আসরে রোনাল্ডো সর্বমোট ১১ গোল করেছেন। সেই সঙ্গে ছাড়িয়ে গেছেন তারই করা ২০১৩-১৪ মৌসুমে সর্বোচ্চ ৯ গোলের রেকর্ডকে। গত মৌসুমে অবশ্য শাখতার ডোনেস্কের স্ট্রাইকার লুইজ আদ্রিয়ানোও গ্রুপ পর্বে ৯ গোল করেছিলেন। এবার সেই রেকর্ডকেই ছাড়িয়ে গেছেন সি আর সেভেন। গ্রুপ পর্বের বিস্ফোরক পারফর্মেন্স নকআউট পর্বেও ধরে রাখতে চান রোনাল্ডো। এ প্রসঙ্গে সাবেক ফিফা সেরা তারকা বলেন, গ্রুপ পর্বে আমরা অসাধারণ খেলেছি। এটা ধরে রাখতে চায় নকআউট পর্বেও। আশা করছি নিজের ধারাবাহিকতাও ধরে রাখতে পারব। আর সেটা যদি হয়, তাহলে হয়ত রোমার কপালে খারাপি আছে!

এই মাত্রা পাওয়া