১৮ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ক্যান্সারের ‘বৈপ্লবিক চিকিৎসার’ দ্বারপ্রান্তে বিজ্ঞানীরা

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ ক্যান্সার চিকিৎসার এমন এক পদ্ধতি আবিষ্কারের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে গেছেন বিজ্ঞানীরা, যা এই প্রাণঘাতী রোগের চিকিৎসায় বৈপ্লবিক পরিবর্তন নিয়ে আসতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে ‘আমেরিকান এ্যাসোসিয়েশন ফর দি এ্যাডভান্সমেন্ট অব সায়েন্স’এর এক সভায় উপস্থাপিত জরিপে বলা হচ্ছে, জিন প্রযুক্তিভিত্তিক এই চিকিৎসা পদ্ধতিতে ‘নাটকীয় ফল পাওয়া যেতে পারে’ বলে বিজ্ঞানীরা ইঙ্গিত পাচ্ছেন। এর একটি জরিপে ক্যান্সারের চিকিৎসায় ‘টি-সেল’ নামে জিনগত পরিবর্তন ঘটানো রোগপ্রতিরোধী দেহকোষ ব্যবহার করা হয়েছে। খবর বিবিসি বাংলার।

রক্তের ক্যান্সারে আক্রান্ত যেসব রোগীর অবস্থা প্রায় শেষ স্তরে পৌঁছে গেছে বা যারা প্রায় মুমূর্ষু অবস্থায় আছেন তাদের ওপর এই ‘টি সেল’ প্রয়োগ করে চিকিৎসায় চমকপ্রদ ফল পাওয়া গেছে। এই পদ্ধতিতে ক্যান্সার থেকে একবার সেরে উঠলে তা যেন আর ফিরে আসতে না পারে তা নিশ্চিত করা সম্ভব হতে পারে - যা অনেকটা টিকার মতোই কাজ করতে পারে, বলছেন বিজ্ঞানীরা।

নব্বই ভাগেরও বেশি ক্ষেত্রে তাদের সম্পূর্ণ সারিয়ে তোলার মতো সাফল্য পাওয়া গেছে। তবে কিছু রোগীর ক্ষেত্রে এই চিকিৎসার বিপরীত প্রতিক্রিয়া হয়েছে এবং বিজ্ঞানীরা বলছেন এ নিয়ে আরও গবেষণা প্রয়োজন।