২৪ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঋণের জামিনদার না হওয়ায় হত্যা করা হয় শিশু সোলায়মানকে!

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাজীপুর, ১৬ ফেব্রুয়ারি ॥ গাজীপুরে ঋণের টাকার জামিনদার না হওয়ায় ভাঙ্গারি ব্যবসায়ী মোকাররম হোসেনের চার বছরের শিশুপুত্র সোলায়মানকে হত্যা করা হয় বলে স্বীকার করেছে প্রতিবেশী এক সেলুন মালিক। এ ঘটনায় র‌্যাব-১ এর সদস্যরা সেলুন মালিক নির্মলকে (৪০) আটক করেছে। নির্মলের বাড়ি নেত্রকোনায়।

নিহত সোলায়মানের বাবা মোকাররম হোসেন জানান, নির্মল কলেজপাড়া এলাকায় দোকান ভাড়া নিয়ে সেলুন ব্যবসা করে। তিনিও পাশাপাশি দোকানে ভাঙ্গারি মালের ব্যবসা করেন। সপ্তাহখানেক আগে নির্মল ‘মার্স মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ’ থেকে ২০ হাজার টাকা ঋণ তোলার আবেদন করে। ঋণপত্রে মোকাররমকে জামিনদার হতে অনুরোধ জানায় নির্মল। ঋণপত্রে মোকাররম প্রথমে জামিনদার হিসেবে স্বাক্ষরও করে। কিন্তু ঋণদাতা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা জানান, নির্মল ঋণ পরিশোধে ব্যর্থ হলে ওই টাকা মোকাররমকেই শোধ করতে হবে। এতে মোকাররম ওই ঋণপত্রে জামিনদার হতে অস্বীকৃতি জানান। পরবর্তীতে এ নিয়ে নির্মলের সঙ্গে মোকাররমের বিরোধ সৃষ্টি হয়। মোকাররমের একমাত্র ছেলে সোলায়মান গত শনিবার বিকেলে নির্মলের দোকানের সামনেই খেলা করছিল।

র‌্যাব-১ এর সিও লে. কর্নেল তুহিন মোহাম্মদ মাসুদ জানান, নির্মল ঘটনার দিনই তার দোকানের শাটার আটকিয়ে শিশু সোলায়মানকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর লাশ কাশিমপুরের সুরাবাড়ি এলাকার রাইস মিলের পাশের জঙ্গলে ফেলে দিয়ে আসে বলে প্রাথমিক স্বীকারোক্তি দিয়েছে। সোমবার বিকেলে নির্মলকে আটক করা হয়।