২১ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ড. ওয়াজেদ মিয়া নিঃস্বার্থভাবে দেশের সেবা করেছেন: আলোচনায় বক্তারা

অনলাইন ডেস্ক ॥ প্রখ্যাত পরমাণু বিজ্ঞানী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বামী ড. ওয়াজেদ মিয়া দেশপ্রেম ও সততার মাধ্যমে নিঃস্বার্থভাবে দেশ ও জাতির সেবা করেছেন। প্রখ্যাত এই বিজ্ঞানীর ৭৪তম জন্মবার্ষিকীতে মঙ্গলবার আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. এ কে এম নূরুন নবী একথা বলেন।

উপাচার্য বলেন, ড. ওয়াজেদ মিয়া ছিলেন মহৎ চরিত্রের একজন আদর্শ মানুষ। তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করেছেন।

ড. ওয়াজেদ মিয়ার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দু’দিনের কর্মসূচির সমাপ্তি অধিবেশনে রংপুর টাউন হলে এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এরপর পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

ড. ওয়াজেদ স্মৃতি সংসদ আয়োজিত এবং সংগঠনটির সহ-সভাপতি এ কে এম মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে এ আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক রাহাত আনোয়ার। এতে ড. ওয়াজেদ মিয়ার জীবনভিত্তিক উদ্বোধনী বক্তৃতা দেন স্মৃতি সংসদের সাধারণ সম্পাদক বিশিষ্ট সাংবাদিক সাইফুল ইসলাম জাহাঙ্গীর।

অন্যান্যের মধ্যে স্মৃতি সংসদের যুগ্ম সম্পাদক এডভোকেট রতিশ চন্দ্র ভৌমিক বাবু সোনা, আওয়ামী লীগ নেতা খলিলুর রহমান মন্ডল ও জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুর রহমান টুটুল বক্তৃতা করেন। সভা পরিচালনা করেন প্রভাষক এলাহী ফারুক।

শিক্ষাবিদ, বুদ্ধিজীবী, সাংস্কৃতিক ও সমাজ কর্মী, সাংবাদিক, শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন স্তরের মানুষ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

দু’দিনের এ কর্মসূচির মধ্যে ছিল পীরগঞ্জ উপজেলার লালদিঘী ফতেহপুর গ্রামে ড. ওয়াজেদ মিয়ার কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল এবং কেরামতিয়া মসজিদে তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাতের আয়োজন করা হয়। মোনাজাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সজীব ওয়াজেদ জয়, সায়মা ওয়াজেদ পুতুল ও তাদের পরিবারের সদস্যদের কল্যাণ কামনা করা হয়।

সভায় বক্তারা ড. ওয়াজেদ মিয়াকে অতুলনীয় চারিত্রিক গুণাবলীর অধিকারী একজন অনন্য মানুষ হিসেবে অভিহিত করেন।