১৯ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বাংলাদেশ ব্যাংকের টাকা চুরি অশনি সংকেত ॥ ওয়ার্কার্স পার্টি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ব্যাংকিং সেক্টরে সীমাহীন দুর্নীতি, লুটপাট, সর্বেশেষ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নিরাপত্তা দুর্বলতার কারণে টাকা চুরি হয়ে যাওয়া জাতির জন্য অশনি সংকেত বলে মনে করে ১৪ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি। সোমবার রাজধানীতে অনুষ্ঠিত এক সমাবেশে দলটির কেন্দ্রীয় নেতারা এসব কথা বলেন।

নেতৃবৃন্দ বলেন, বিভিন্ন সময়ে আর্থিক লুটপাটের বিরুদ্ধে বিশেষ করে হলমার্ক, বেসিক ব্যাংক কেলেঙ্কারি সম্পর্কে আমরা সুষ্ঠু বিচারের দাবি করেছিলাম এবং ইব্রাহীম খালেদ তদন্ত কমিশনের রিপোর্টের ভিত্তিতে মূল হোতাদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবি জানানো হয়েছিল। কিন্তু বর্তমান অর্থমন্ত্রী নিজের দায় এড়িয়ে এবং রাজনীতির ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে ইচ্ছাকৃতভাবে কোন সুনির্দিষ্ট ব্যবস্থা নিলেন না। সর্বশেষ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের টাকা চুরির ঘটনার ইস্যুটিকে ঘিরে অর্থমন্ত্রী কাজের চেয়ে কথা বেশি বলছেন। প্রকারান্তরে নিজ দায় ঢাকার চেষ্টা করছেন। পত্র-পত্রিকার সাক্ষাতকারে সে কথা স্পষ্টভাবে এসেছে। নেতৃবৃন্দ বলেন, অর্থমন্ত্রী কেন্দ্রীয় ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে ৮০০ কোটি টাকা চুরির ঘটনায় ব্যাংকের গবর্নর ড. আতিউর রহমানকে পদত্যাগ করার কথা বলছেন অথচ হলমার্ক কেলেঙ্কারি ঘটনা ব্যাংকের ৪ হাজার ৫০০ কোটি টাকা লোপাটের ঘটনাকে তিনি কিছুই না বলে অভিহিত করেছেন, বিশ্বব্যাংক টাকা দেবে এই প্রতিশ্রুতিতে পদ্মা সেতুর কাজ ৬ মাস ঝুলে ছিল।

দুদক ডিজিসহ চার কর্মকর্তা নিজ দফতওে ফেরত যাচ্ছেন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মহাপরিচালক (ডিজি) জিয়া উদ্দিন আহমেদসহ মোট চার কর্মকর্তাকে তাদের নিজেদের দফতরে ফেরত পাঠাচ্ছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সোমবার দুপুরে কমিশনের এক বৈঠকে তাদের পূর্বের কর্মস্থলে ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। দুদক সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। এ চারজন কর্মকর্তাই প্রেষণে সরকারের বিভিন্ন দফতর থেকে দুদকে যোগ দিয়েছিলেন। ফেরত যাওয়া কর্মকর্তারা হলেন দুদকের ডিজির দায়িত্বে থাকা (অনুসন্ধান ও তদন্ত) জিয়া উদ্দিন আহমেদ, পরিচালক বিমান বাহিনীর উইং কমান্ডার তাওহীদুল ইসলাম, পরিচালক মনিরুজ্জামান এবং জন-সংযোগ কর্মকর্তা (উপ-পরিচালক) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য।

সূত্র জানায়, কমিশনের সিদ্ধান্তের পরই বিকেলে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের কাছে দুদক থেকে সংস্থার ডিজি ও জনসংযোগ বিভাগের উপ-পরিচালককে ফেরত নিতে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

নির্বাচিত সংবাদ