১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দলবাজি-দুর্নীতি থেকে দেশকে মুক্ত করতে সহযোগিতা চাইলেন ইনু

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জঙ্গি-রাজাকার, বৈষম্য ও দলবাজি-দুর্নীতি থেকে দেশকে মুক্ত করতে সকলের সহযোগিতা চাইলেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। বৃহস্পতিবার স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে দেশব্যাপী পতাকা মিছিলের অংশ হিসাবে রমনা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট এর সামনে জাসদ আয়োজিত মিছিল পূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সহযোগিতার কথা বলেন।

জঙ্গি-রাজাকার, বৈষম্য ও দলবাজী-দুর্নীতি থেকে মুক্ত শান্তি-সমৃদ্ধি ও সুশাসনের বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে স্বাধীন বাংলাদেশ এতদিনে আরো এগিয়ে যেতে পারতো। কিন্তু সামরিক হস্তক্ষেপ ও সাম্প্রদায়িক জঙ্গিবাদের উৎপাত সে অগ্রযাত্রা ব্যহত করেছে।

ইনু বলেন, গত সাত বছর ধরে সামরিক-সাম্প্রদায়িক জঞ্জাল ঘুচিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর মাধ্যমে আমরা যা অর্জন করেছি, তাকে আরো একধাপ এগিয়ে নিতে দেশকে জঙ্গি-রাজাকার, বৈষম্য ও দলবাজী-দুর্নীতি থেকে মুক্ত করতে হবে। সে জন্য প্রয়োজন জঙ্গিবাদ এবং জঙ্গি পাহারাদার বিএনপি-খালেদা জিয়াকে বর্জন। কারণ খালেদা জিয়া এবং বিএনপি এখনও বঙ্গবন্ধু, একাত্তরে শহীদ ও মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে মিথ্যাচার করে চলেছে, এখনও তারা জামাত-জঙ্গি-আগুনসন্ত্রাসী-যুদ্ধাপরাধীদের সঙ্গ ত্যাগ করেনি।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকে যারা জাতির পিতা বলে না এবং রাজাকারের হাত ধরে থাকে, তারা পাকিস্তানী ভূত ও নব্যরাজাকার। জাসদের সহ-সভাপতি মীর হোসাইন আখতারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন দলের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আনোয়ার হোসেন, জাতীয় নারী জোটের আহ্বায়ক আফরোজা হক রীনা, জাসদের সহ-সভাপতি এড. হাবিবুর রহমান শওকত, আনোয়ারুল ইসলাম বাবু, নাদের চৌধুরী, নুরুল আখতার প্রমুখ। সমাবেশ শেষে একটি সুসজ্জ্বিত পতাকা মিছিল নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে জাসদ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়।