২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বাকৃবিতে শিক্ষকের ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বে ফলাফল আটকে থাকার অভিযোগ

বাকৃবি সংবাদদাতা ॥ বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) ফার্ম স্ট্রাকচার অ্যান্ড ইনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষকদের ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বে মাস্টার্সের ফলাফলা আটকে আছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ফলপ্রকাশ না হওয়ায় সমস্যার সম্মুখিন হয়েছে শিক্ষার্থীরা। এদিকে দ্বন্দ্বের জের ধরে বিভাগীয় প্রধানের অপসারণ চেয়ে গতকাল মঙ্গলবার রেজিস্ট্রার বরাবর অভিযোগ পত্র দিয়েছে ওই বিভাগের অন্যান্য শিক্ষকরা।

বিভাগীয়সূত্রে জানা যায়, ৮ ফেব্রুয়ারি ওই বিভাগের মাস্টার্সের ডিফেন্স অনুষ্ঠিত হয়। ডিফেন্সে ১২ জন শিক্ষার্থী অংশ নেয়। পরবর্তীতে একজন শিক্ষার্থীর থিসিসকে নকল ধরে ফলাফল শিটে বাকি ১১ জনের নম্বর উঠিয়ে ফলাফল তৈরি করেন ডিফেন্স কমিটির চেয়ারম্যার বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন। কিন্তু সকল শিক্ষার্থীর নম্বর রেজাল্ট শিটে না থাকায় স্বাক্ষর থেকে বিরতে থাকেন ওই কমিটির অন্য তিন সদস্য অধ্যাপক ড. মোঃ নূরুল হক, অধ্যাপক ড. মো‍ঃ আলী আশরাফ ও অধ্যাপক মোঃ সিদ্দিকুর রহমান। এতে করে স্থগিত হয়ে যায় ফলাফল। এ বিষয়ে ওই কমিটির সদস্য অধ্যাপক মোঃ সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ডিফেন্সের নম্বর দিয়ে হঠাৎ থিসিসকে নকল বলে ফলাফল আটকে দেওয়ার অধিকার তার নাই। নকল হলে তাকে ডিফেন্সের সময়ই ধরতে হবে। তিনি আরও বলেন, ওই শিক্ষক পূর্ববর্তী বিভাগীয় প্রধানের সাথে ব্যক্তিগত আক্রোশেই এই কাজ করছেন। আমার তাঁর অধীনে বিভাগের সকল ধরনের কাজকর্ম বর্জন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি এবং তার অপসারণ চেয়ে রেজিস্ট্রার বরাবর পত্র দিয়েছি। এদিকে ফলাফল আটকে রাখায় বিপাকে পড়েছে বাকী শিক্ষার্থীরা। শিক্ষকদের ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বে ফলাফল আটতে আছে বলে অভিযোগ করেন তারা।

বিভাগীয় প্রধান ও কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন বলেন, নকল থিসিসটি ছাড়া বাকি শিক্ষার্থীদের নম্বরপত্র তৈরি করে আমি সই দিয়েছি। ফল প্রকাশের বিষয়টি এখন আমার হাতে নেই। আমি দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রশাসনকে জানিয়েছি। ফলাফলের ব্যাপারে উচ্চশিক্ষা ও গবেষণা কমিটির সমন্বয়ক অধ্যাপক অধ্যাপক ড. আবদুর রহমান সরকার বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে আমি অবগত আছি। খুব শিগগির ইতিবাচক সিদ্ধান্ত দেয়ার চেষ্টা করছি।