২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

লৌহজংয়ে দু’চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ৭ ॥ যানবাহন ভাংঙচুর

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ে খিদিরপাড়া ইউনিয়নের দু’চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে আহত হয়েছেন ৭জন। এ সময় ভাঙচুর করা হয়েছে ৩ টি মাইক্রোবাস ও দু’মটোর সাইকেল। এ ছাড়া খিদিরপাড়া ইউপি স্বতন্ত্র প্রার্থীর উপর আওয়ামী লীগ প্রার্থীর লোকজন হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শি ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে লৌহজং উপজেলা রিটানিং অফিসার ও নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ আলমগীর হোসেনের কাছে খিদির পাড়া ইউনিয়ন স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহ নেওয়াজ মৃধা মনোনায়ন পত্র যাচাই বাছইয়ের খবর জেনে আসার পথে তার প্রতিপক্ষ আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী আনোয়ার হোসেন ব্যাপারীর লোকজন হামলা করে। উপজেলা কমপাউন্ডের মূল ফটক বন্ধ করে এ হামলায় শাহ নেওয়াজের কর্মী টুয়েল শেখ, মোঃ মোস্তাফা, আমির হোসেন মল্লিক ও মোঃ কচি নামে তিন জনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এ সময় হামলাকারীরা ৩টি মাইক্রোবাস ও ২টি মটরসাইকেলও ভাংঙচুর করে। এ হামলায় আরো ৩ জন আহত হয়। আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এর পূর্বে একই এলাকায় বেজগাঁও ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী নজরুল ইসলাম খানের উপর হামলা চালায় প্রতিপক্ষ আওয়ামী লীগের সমর্থিত প্রার্থী আমির হোসেন তালুকদারের সমর্থকরা।

এ ব্যাপারে লৌহজং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ খালেকুজ্জামান জানান, প্রশাসনের তরিৎ হস্তক্ষেপে বড় ধরণের দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব হয়েছে। কোন প্রকার সহিংসতা বরদাস্ত করা হবেনা। সহিংসতা এড়াতে সকল প্রকার মটোর শোভাযাত্রা নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে লৌহজং থানার ওসি মোল্লা জাকির হোসেন জানান, উপজেলা পরিষদের সামনে দুই চেয়ারম্যান সমর্থকদের মাঝে সংঘর্ষ হয়। এসময় দ্রুত পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। বর্তমানে উপজেলায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।এ ব্যাপারে এখনও কোন মামলা হয়নি। মামলা হলে ব্যবস্থা নিবো।