২১ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টেকসই উন্নয়নে নারীর ক্ষমতায়নের তাগিদ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে নারীদের ক্ষমতায়নের তাগিদ দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ) আয়োজিত আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে সেমিনারের এ তাগিদ দেয়া হয়। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে পিকেএসএফ অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত সেমিনারে মূল প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল টেকসই উন্নয়নে নারীর ক্ষমতায়ন। পিকেএসএফের সভাপতি ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদের সভাপতিত্বে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

সেমিনারে পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) ১৫০টি সহযোগী সংস্থার ২৪৯ জন নারী প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও পিকেএসএফের নারী চাকুরেসহ উর্ধতন কর্মকর্তাগণ উক্ত সেমিনারে অংশগ্রহণ করেন। সেমিনারে সম্মানীয় অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) ড. নাসরীন আহমাদ। তিনি টেকসই উন্নয়ন অর্জনের জন্য নারীর নানামুখী ভূমিকা উল্লেখ করেন। শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য রাখেন পিকেএসএফের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল করিম। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজের সিনিয়র রিসার্চ ফেলো এবং পিকেএসএফের সাধারণ পর্ষদের সদস্য ড. নাজনীন আহমেদ। সেমিনারে পিকেএসএফের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ সমাপনী বক্তব্য রাখেন। নারীদের কার্যকর ক্ষমতায়নের জন্য কতিপয় গুরুত্বপূর্ণ সুপারিশমালা প্রণয়ন এবং তা বাস্তবায়নের জন্য কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানান।

রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের সংখ্যা কমাবে ভারত

ব্যাংকিং খাতের শক্তি সংহত করতে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের সংখ্যা ২৭ থেকে কমিয়ে ৬-এ আনবে ভারত সরকার। আইডিবিআই ব্যাংকে সরকারের মালিকানার অংশ কমিয়ে আনার ঘোষণার পর থেকে ভারতের পুঁজিবাজারে এ বিষয়ে গুঞ্জন চলছে। নতুন অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপনের সময় ভারতের অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি আইডিবিআই ব্যাংকে সরকারের মালিকানা হ্রাসের ঘোষণা দিয়েছেন। ব্যাংকটিতে বর্তমানে সরকারের মালিকানা ৮০ দশমিক ২ শতাংশ। অরুণ জেটলি তা ৫০ শতাংশে কমিয়ে আনার ঘোষণা দিয়েছেন। সরকারী এ ঘোষণার প্রতিবাদে আইডিবিআই ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দুটি ইউনিয়ন গত সোমবার থেকে চারদিনের ধর্মঘট শুরু করেছে। -অর্থনৈতিক রিপোর্টার

চামড়াজাত পণ্য রফতানি দ্বিগুণের সম্ভাবনা

রাজনৈতিক পরিবেশ স্বাভাবিক থাকলে এবং সরকারের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা পাওয়া গেলে বাংলাদেশ থেকে চামড়াজাত পণ্য রফতানি দ্বিগুণ করা সম্ভব বলে জানিয়েছেন লেদার গুডস এ্যান্ড ফুটওয়্যার ম্যানুফেকচারার এ্যান্ড এক্সপোর্টার্স এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (এলএফএমইএবি) নেতারা। তাদের দাবি, প্রয়োজনীয় পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে সম্ভাবনাময় চামড়া শিল্প তার কাক্সিক্ষত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারছে না। মঙ্গলবার রাজধানীর লালবাগে বিপিপিএস কমন ফ্যাসিলিটি সেন্টার উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এ দাবি জানান তারা। মেট্রোপলিটান চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এমসিসিআই) সভাপতি সৈয়দ নাসিম মনজুরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও বাংলাদেশ ইন্সপায়ার্ড প্রকল্পের পরিচালক সুসেন চন্দ্র দাস। বিশেষ অতিথি ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের মিনিস্টার কনস্যুলার জুর্জেন হাইম্যান। -অর্থনৈতিক রিপোর্টার