২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সুন্দরবনের অভয়ারণ্যে মাছ শিকার : ৪ বনরক্ষী বরখাস্ত

স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট ॥ পূর্বসুন্দরবনের কটকা অভয়ারণ্যে জেলেদের অবৈধ মাছ শিকারের সুযোগ দেওয়ার অভিযোগে ৪ বনরক্ষীকে বনবিভাগ সাময়িক বরখাস্ত করেছে। বরখাস্ত এই চার বনরক্ষীদের তার কর্মস্থল থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। অনুরূপ দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে শরণখোলা রেঞ্জের সহকারী বনসংরক্ষক কামাল উদ্দিন আহমেদ এবং কটকা অভয়ারণ্য কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ মোঃ নোমানকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়েছে। এই দুই কর্মকর্তাকে তিন দিনের মধ্যে তাদের দায়িত্ব অবহেলার জবাব দিতে শোকজ নোটিশ পাঠিয়েছে বন বিভাগ। বুধবার বিকেলে সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ সাইদুল ইসলাম এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

গত ২৩ মার্চ ইউনেস্কোর তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবন পরিদর্শনে এসে অভয়ারণ্য এলাকায় জেলেদের মাছ শিকার করতে দেখে বিস্ময় প্রকাশ করেন। একারণে ওই এলাকায় দায়িত্বে থাকা চার বনরক্ষীর বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে বরখাস্ত করা হয়। এরা হলেন, সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের কটকা অভয়ারণ্য এলাকায় কর্মরত বনরক্ষী সবুর মোল্লা, নৌকা চালক আনিসুর রহমান, নাসির উদ্দিন হাওলাদার ও মোশাররফ হোসেন।

ডিএফও সাইদুল ইসলাম জানান, ২৩ মার্চ ইউনেস্কোর তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল তিনদিনের জন্য সুন্দরবন পরিদর্শনে আসে। তারা সুন্দরবনের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শনের সময়ে কটকা অভয়ারণ্য এলাকায় কিছু জেলেকে মাছ শিকার করতে দেখে বিস্ময় প্রকাশ করেন। অভয়ারণ্যে মাছ শিকার নিষিদ্ধ। কিন্তু ওই বনকর্মীরা তা জেনেও জেলেদের অবৈধভাবে মাছ শিকার করার সুযোগ করে দেওয়ার অপরাধে তাদের সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে কর্মস্থল থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। একই সাথে রেঞ্জ কর্মকর্তা ও কটকা অভয়ারণ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে।