১৮ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কৃষকের কর্তৃত্ব থাকুক

মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির

দেশের জাতীয় আয়ের ক্ষেত্রে কৃষির অবদান প্রায় ৫৫ শতাংশ। সুতরাং কৃষি উন্নয়নের সঙ্গে বাংলাদেশের সার্বিক অর্থনৈতিকভাবে উন্নয়ন ওতপ্রোতভাবে জড়িত। আশঙ্কার বিষয় হচ্ছে বাংলাদেশের কৃষিযোগ্য জমির পরিমাণ দিন দিন কমছে। বিগত কয়েক দশকে গ্রামাঞ্চলে কৃষি জমি গ্রাস করে অন্যকাজে ব্যবহারের প্রবণতা তুলনামূলকভাবে বেশি হচ্ছে।

নদী ভাঙ্গনের কারণেও কিছু আবাদি জমি নদীতে বিলীন হচ্ছে। শিল্পের সম্প্রসারণ কোন কোন ক্ষেত্রে নিজস্ব অবস্থানের আবাদি জমিকে গ্রাস করে ক্ষান্ত হয় না, দূষণের মাধ্যমেও আবাদি জমিকে নষ্ট করে থাকে। এক্ষেত্রে অবশ্যই সরকারী নীতির প্রতি অবহেলা, এবং পারিপার্শ্বিক গুণাগুণ বিচার না করা প্রভৃতি দায়ী থাকে। বাংলাদেশের আঞ্চলিক পরিকল্পনা এবং কৃষির উন্নয়নের জন্য ভূমি ব্যবহার জরিপ অতি প্রয়োজনীয় বলে আমরা মনে করি। বিশেষ করে সীমিত এলাকায় অধিক জনসংখ্যার খাদ্যের চাহিদা মেটানো এবং অন্যান্য সুবিধা নিশ্চিত করতে ভূমি ব্যবহার পরিকল্পনার কোন বিকল্প নেই।

ভূমি ব্যবহার জরিপ সম্পর্কে সাধারণ ধারণা, ভূমির শ্রেণীবিন্যাস, ভূমি সক্ষমতা ও সুপ্ত কার্যকারিতা, ভূমি ব্যবহারে গতিশীলতা, ভূমি ব্যবহার জরিপ কৌশল, বিশ্বব্যাপী ভূমি ব্যবহার জরিপ প্রভৃতি সম্পর্কে জ্ঞাত হতে হবে। আসল কথা হলোÑ কৃষি জমিতে বাংলার কৃষকদের কর্তৃত্ব থাকতে হবে।

দক্ষিণ মধ্যম হালিশহর

চট্টগ্রাম থেকে