১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চলতি বছর ১৩ লাখ টন জ্বালানি তেল আমদানির সিদ্ধান্ত

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ চলতি বছরের জন্য ১৩ লাখ মেট্রিক টন অপরিশোধিত জ্বালানি তেল ক্রয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এতে মোট ব্যয় হবে ৫৫ কোটি ৩২ লাখ ডলার। বাংলাদেশী টাকায় যার পরিমাণ হচ্ছে প্রায় ৪ হাজার ৩৯৯ কোটি টাকা। আমদানিকৃত এসব জ্বালানি তেল ‘ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেড’-এ প্রক্রিয়াকরণ করা হবে। বুধবার সচিবালয়ে সরকারী ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এ সংক্রান্ত একটি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোস্তাফিজুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, ১৩ লাখ মেট্রিক টন অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের মধ্যে আবুধাবি ন্যাশনাল অয়েল কোম্পানি থেকে ৬ লাখ মেট্রিক টন অপরিশোধিত মারবান আমদানি করা হবে। এতে ব্যয় হবে প্রায় ২৬ কোটি ৮৩ লাখ ডলার (২ হাজার ১৩৩ কোটি ৬৫ লাখ টাকা)। অবশিষ্ট ৭ লাখ মেট্রিক টন এরাবিয়ান লাইট ক্রুড অয়েল আমদানি করা হবে সৌদিয়া এরাবিয়ান অয়েল কোম্পানি থেকে। এতে ব্যয় হবে প্রায় ২৮ কোটি ৪৯ লাখ ডলার (২ হাজার ২৬৫ কোটি ৬ লাখ টাকা)। অতিরিক্ত সচিব জানান, বৈঠকে মোট ৮টি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এগুলোর মধ্যে সড়ক ও জনপথ অধিদফতর কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ময়মনসিংহ জোনের কিশোরগঞ্জ সড়ক বিভাগের ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম সড়ক নির্মাণ প্রকল্পের চারটি প্যাকেজ (প্যাকেজ ডব্লিউডি-০১, ০২, ০৩ ও ০৪)।

এর মধ্যে প্যাকেজ-০১’র কাজটি পেয়েছে স্পেক্ট্রা ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড। এতে ব্যয় হবে ১৩৪ কোটি ৮ লাখ টাকা। প্যাকেজ-০২’র কাজটি পেয়েছে মেসার্স মনিকো লিমিটেড। এতে ব্যয় হবে ১৫৪ কোটি ২৬ লাখ টাকা। প্যাকেজ-০৩’র কাজটি পেয়েছে যৌথভাবে মেসার্স স্পেক্ট্রা ইঞ্জিনিয়ার্স ও এমবিইআই। এতে ব্যয় হবে ১১১ কোটি ৫৬ লাখ টাকা। প্যাকেজ-০৪’র কাজটি যৌথভাবে পেয়েছে স্পেক্ট্রা ইঞ্জিনিয়ার্স ও আরবিপিএল। এতে ব্যয় হবে ১১৩ কোটি ৮৯ লাখ টাকা।

তিনি জানান, চরম দরিদ্রদের জন্য নিরাপত্তা বলয় পদ্ধতি শীর্ষক প্রকল্পের ২নং কম্পোনেন্ট দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ কর্মসূচী প্রশাসন শক্তিশালীকরণে ম্যানেজমেন্ট ইনফর্মেশন সিস্টেমের জন্য পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছে যৌথভাবে সিনোর্জি-সিনোসিস আইটি। এতে ব্যয় হবে ২৬ কোটি ৭২ লাখ টাকা। তিনি জানান, ইনস্টলেশন অব ইউনিট-২ ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেডের প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্ট হিসেবে ভারতীয় প্রতিষ্ঠান ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্ডিয়া লিমিটেডকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ১১০ কোটি ৬১ লাখ টাকা।

এছাড়া চলতি ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ৬০ কোটি টাকার বাজেট বরাদ্দ থেকে ৪ হাজার ১০৯ মেট্রিক টন ঢেউটিন ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে মোট ব্যয় হবে ৫৯ কোটি ৯৭ লাখ টাকা।

অতিরিক্ত সচিব জানান, এর আগে অর্থনৈতিক বিষয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে তিনটি প্রস্তাব নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এগুলো হচ্ছে চলতি পঞ্জিকা বছরে মোট চাহিদার ৫০ শতাংশ জ্বালানি তেল উন্মুক্ত দরপত্র প্রক্রিয়ায় আমদানির প্রেক্ষাপটে অন্তর্বর্তীকালীন জ্বালানি তেল আমদানি, সরকার-টু-সরকার ভিত্তিতে চীনা অর্থায়নে পদ্মা সেতু রেল সংযোগ শীর্ষক প্রকল্পের কাজ সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে বাস্তবায়ন এবং পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের ভূমি অধিগ্রহণ সহায়তা ও পুনর্বাসন বাস্তবায়ন, ডিজাইন রিভিউ ও নির্মাণকাজ সুপারভিশনের জন্য বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সিএসসিকে (ইঞ্জিনিয়ারিং কোর) একক উৎসভিত্তিক পরামর্শক নির্বাচন পদ্ধতিতে পরামর্শক নিয়োগ প্রক্রিয়াকরণের প্রস্তাব।