২০ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

অদল-বদল

কারিনাকে নিয়ে দুটি ইস্যুতে খুব আলোচনা চলছে বলিউডে। প্রথমটি, তিনি নাকি নারী অধিকার-ক্ষমতায়ন ইত্যাদি নিয়ে খুব মাথা ঘামাচ্ছেন ইদানিং। আর দ্বিতীয়টি, চুমুর দৃশ্য। অর্জুন কাপুরকে এতটা অন্তরঙ্গভাবে চুমু খেয়েছেন ক্যামেরার সামনে! রীতিমতো এ ইস্যুটি হইচই ফেলে দিয়েছে। প্রশ্নের পর প্রশ্ন ছুটে যাচ্ছে। অনেকে তো পারলে সাইফ-কারিনার বেডরুমেও উঁকি দিয়ে বসেন, ফাটল কি ধরলো!

তাদের কৌতুহলের গুড়ে বালি। না, সংসার তাদের ঠিকই আছে। ফাটলের অস্তিত্বও দেখা যাচ্ছে না। তাতেও আলোচনা থেমে যায়নি। কারিনা পর্যন্ত ছুটে গেছে প্রশ্ন, কেন চুমু? গোটা বিষয়টিতে কারিনাও বেশ মজা পাচ্ছেন। রসিয়ে জবাবও দিচ্ছেন। কি জবাব, সেটা বলার আগে জানিয়ে রাখা জরুরী এই যে ইস্যু দুটি তৈরি হয়েছে, কেন্দ্রস্থল কিন্তু একটাইÑ ‘কি এ্যান্ড কা’। অর্জুন-কারিনার নতুন ছবি। আর. বালকি পরিচালক।

এবার আসা যাক কারণে। কেন এত হইচই! প্রথমত ছবির গল্প। আর. বালকি অর্জুন-কারিনাকে নিয়ে ছবি করতে গিয়ে এমন গল্প বেছেছেন, যেখানে মূল বিষয় জেন্ডার রোলের অদল-বদল। স্বাভাবিকভাবেই সংসারে মেয়েদের কাজ থাকে ঘরে। ঘরদোর সামলানো, রান্না করা, সন্তান-আত্মীয়-স্বজনের দেখভাল ইত্যাদি ইত্যাদি। অনেক মহিলা যদিও চাকরি-বাকরি করেন, তবুও এ দায়িত্ব যে একেবারে শিকেয় তুলে হাত-পা মুছে উঁচুতে উঠে বসেন, তা তো নয়।

আর পুরুষরা চাকরি-বাকরি-রোজগার করেন। সংসারের অত খুঁটিনাটি বিষয়ে নজর না রাখলেও চলে। মানে একটি সংসারে স্বামী-স্ত্রী দুজনের দায়িত্ব-কর্তব্যে পার্থক্য আছে। যদি এই বিষয়টিকে একটু অন্যভাবে দেখা যায়? মানে, স্ত্রী যদি স্বামীর স্থানে এসে বসেন, আর স্বামী যদি কাঁধে তুলে নেন স্ত্রীর কাজকর্ম, তাহলে? কী ঘটতে পারে সেটা নিয়েই ‘কি এ্যান্ড কা’। সোজা কথায়, হাউস হাজব্যান্ডের গল্প। রোম্যান্টিক গল্প, হাসি-তামাশারও কমতি নেই। কারিনার নাম এখানে কিয়া, আর অর্জুনের নাম কবির। ছবির নাম ‘কি এ্যান্ড কা’ হওয়ার এটিই আসল কারণ।

যেটা নিয়ে কথা হচ্ছিল, কারিনা যেহেতু এই জেন্ডার রোল পরিবর্তনের গল্পে হাজির হয়েছেন, অনেকে ভেবে নিয়েছেন এটা বোধহয় নারীর ক্ষমতায়নের ইস্যুকেই প্রমোট করছে! আর কারিনা কাঁধে তুলে নিয়েছেন সেই গুরুদায়িত্ব! তবে কারিনা, পরিচালক আর. বালকি, অর্জুন কাপুর প্রত্যেকেই জোর গলায় বলে দিচ্ছেন, বিষয়টি আসলে তা নয়। স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ক নিয়ে এটি একটি কমার্শিয়াল গল্প। রোম্যান্টিক গল্প।

আর কিসিং সিন? বিষয়টিকে একেবারে পাত্তাই দিচ্ছেন না কারিনা। উল্টো হাসছেন এ প্রসঙ্গে। সমালোচকদের অনেকেই বলছেন, আর কিচ্ছু না। বাণিজ্যিক চাহিদা বাড়ানোর জন্যই অর্জুন-কারিনাকে দিয়ে চুমুর ছড়াছড়ি ঘটিয়েছেন পরিচালক। কারিনা বলছেন, ‘আমার মনে হয় না যে, বলিউডে শুধু সেলিং পয়েন্টের জন্য চুমুর দৃশ্য রাখা হয়। এ ছবিতে, আমরা স্বামী-স্ত্রীর চরিত্রে কাজ করেছি। তো ম্যারিড কাপল কিস করবেই, তাই না?’ সহজ হিসাব!

অমিতাভ বচ্চনও আছেন এতে। রয়েছেন জয়া বচ্চনও। অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে এবারই অর্জুনের প্রথম কাজ। তার সঙ্গে কাজের মুহূর্তগুলোকে অর্জুন তাই মার্ক করছেন ‘সাররিয়াল মোমেন্ট’ হিসেবে। ‘কি এ্যান্ড কা’ মুক্তি পাবে আগামীকাল, ১ এপ্রিল।