১৮ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সেমিফাইনালের ফাঁড়া কাটলে ধোনির হাতে কাপ - সঞ্জয় জুমানি

সেমিফাইনালের ফাঁড়া কাটলে ধোনির হাতে কাপ - সঞ্জয় জুমানি

অনলাইন ডেস্ক ॥ ফের বিশ্বকাপ সেমিফাইনাল ভারতের মাটিতে। আর মোহালিতে ধোনির টিমের অস্ট্রেলিয়াকে হারানোর পর থেকে অনুরাগীদের যাবতীয় প্রশ্ন ভারতের কাপ ভাগ্য নিয়ে।

মোটামুটি ভাবে ধোনির ভারতের ফাইনালের আকাশ ঝলমলে। কিন্তু গণনা করতে গিয়ে দেখছি যত ঝঞ্ঝাট সেমিফাইনাল ভাগ্য ঘিরেই!

২৭ মার্চ অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়েছিল ভারত। সংখ্যাতত্ত্ব অনুযায়ী ২৭ সংখ্যাটির যোগফল ২+৭ = ৯। যা ভারতের পক্ষে শুভ সংখ্যা।

যুদ্ধ, ক্রিকেট, অলিম্পিক্স, স্বাধীনতা, অস্কার— এ সব ব্যাপারেই বৃহস্পতি (৩), শুক্র (৬) এবং মঙ্গলের (৯) সংখ্যাগুলোর বিশেষ প্রভাব রয়েছে ইন্ডিয়া (৩) কিংবা ভারতের (৬) উপর।

স্বাধীনতার পর এটা আমাদের দেশের ৬৯তম বছর। যেটা একটা মাইলফলক বছর হতে পারে। বিশেষ করে সালটাও যখন ২০১৬ (৯)।

এ বার আসুন দেখে নিই ভারতের উপর ৩, ৬, ৯—এই তিনটি সংখ্যার প্রভাব কতটা শুভ।

ভারতের স্বাধীনতা পাওয়ার বছর ১৯৪৭=৩। তারিখ অগস্ট ১৫=৬। আমরা প্রথম বার বিশ্বকাপ জিতি ১৯৮৩=৩। যার যোগফল ৩। সেই দলের অধিনায়ক কপিল দেবের (জন্মদিন ০৬/০১) নামের সংখ্যাতত্ত্বগত যোগফল ৩।

যার ঠিক ২৪ (যোগফল ৬) বছর বাদে ধোনিদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতার বছরটা ছিল ২০০৭। যোগফল সেই ৯। মাসটা সেপ্টেম্বর। বছরের ৯ম মাস। ম্যান অব দ্য ম্যাচ ইরফান পাঠান। যাঁর জন্ম তারিখ ২৭। যোগফল সেই ৯। আর ইরফানের জার্সির নম্বর ছিল ৬৩। মানে যোগ করলে সেই ৯।

ভারতের এশিয়া কাপ জয়গুলোও খুঁটিয়ে দেখলে দেখবেন যে সব বছর যোগ করলে ৩ বা ৬ বা ৯ হয়, সেগুলোতেই ভারতের রমরমা।

শেষ যে বার ভারত বিশ্বকাপ জিতেছিল সে বারও বেশির ভাগ ম্যাচের তারিখগুলোর যোগফল ছিল ৩,৬ কিংবা ৯।

অতীতেও দেখা গিয়েছে ক্রিকেট মাঠে পাঁচ-ছ’টা ক্লোজ ম্যাচ ভারত জিতেছে এমন এমন তারিখে, যে তারিখগুলোর সঙ্গে ঠিক কোনও না কোনও ভাবে ৩, ৬, ৯ সংখ্যাগুলো ঠিক যুক্ত রয়েছে। এ রকম কিছু তারিখ হল ৬/৩/১৯৯০ (ভার্সাস নিউজিল্যান্ড), ২১/২/২০১০ (ভার্সাস দক্ষিণ আফ্রিকা), ২৪/১১/১৯৯৩ (ভার্সাস দক্ষিণ আফ্রিকা), ২৪/১/২০০৪ (ভার্সাস জিম্বাবোয়ে), ১৫/১২/২০০৯ (ভার্সাস শ্রীলঙ্কা)।

২০১০ (যোগফল ৩)-এ গোটা বিশ্ব যখন আর্থিক মন্দার সামনে পড়েছিল তখন ভারতকে তার আঁচ পোহাতে হয়েছিল খুবই কম। ওবামা থেকে সারকোজি সকলেই তারিফ করেছিলেন ভারতীয় অর্থনীতির।

৩, ৬, ৯—এই ত্রয়ী সংখ্যার দৌলতে ভারত গত অলিম্পিক্সে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল। ভারতের হয়ে প্রথম পদক জিতেছিলেন গগন নারঙ্গ। সংখ্যাতত্ত্ব অনুযায়ী, যাঁর জন্ম তারিখ ও নামের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে ৩ ও ৬ সংখ্যা দুটো। আর এক পদকজয়ী মেরি কমও নিউমেরোলজি অনুযায়ী ৩ ও ৬ সংখ্যা দ্বারা প্রভাবিত।

তিনটে যুদ্ধ এ পর্যন্ত আমরা সাফল্যের সঙ্গে জিতেছি। সেই তিনটে বছর হল ১৯৪৭ (৩), ১৯৬৫ (৩) ও ১৯৭১ (৯)। কারগিলে পাক অনুপ্রবেশের সময়ও পয়েন্ট ৫২০৩ ভারতীয় সেনাবাহিনী জয় করেছিল ২১ (৩) জুন এবং খালুবার ৬ (৬) জুলাই।

স্লামডগ মিলিওনিয়ার অস্কার জিতেছিল। ছবিটির লেটারগুলো যোগ করলে দাঁড়ায় ৬৩ মানে সেই ৯। আমাদের সংসদের প্রবেশদ্বার ১২ (৩)টা। তৈরি করতে সময় লেগেছিল ৬ বছর। আর উদ্বোধন হয়েছিল ১৮ (৯) তারিখে।

এশিয়া কাপের ফাইনালের তারিখটাও ছিল সেই ৬। এ বার ফাইনাল সেই ৩ এপ্রিল।

কিন্তু আজ বৃহস্পতিবারের সেমিফাইনাল? ৩১ তারিখটা ৩, ৬, ৯ সংখ্যাপ্রভাবিত নয়! মুম্বইতে তাই জিততে গেলে ধোনির দলকে কঠোর সংগ্রাম করতেই হবে।

জয় হো।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা