১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রিজার্ভ চুরি ॥ মায়া ও টোরেসের বিরুদ্ধে আরসিবিসি-এর মামলা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের অর্থ ফিলিপিন্সে পাচারের ঘটনায় সাবেক দুই কর্মী মায়া দেগুইতো ও অ্যাঞ্জেলা টোরেসের বিরুদ্ধে মামলা করেছে রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকিং কর্পোরেশন- আরসিবিসি। মানি লন্ডারিং মামলায় ব্যাংকটির জুপিটার শাখার সাবেক ব্যবস্থাপক মায়া ও জ্যেষ্ঠ জনসংযোগ কর্মকর্তা টোরসের বিরুদ্ধে ৮ কোটি ১০ লাখ ডলারের পাচারের অভিযোগ আনা হয়েছে।

ফিলিপিন্সের সংবাদমাধ্যম 'এবিএস-সিবিএন'কে এ কথা জানিয়েছেন আরসিবিসি গ্রুপের আইনজীবী মিশেল এস্তাভিলো। তবে এই দু'জন কর্মী ছাড়াও আরো জুপিটার শাখার একজন কর্মী এই কেলেঙ্কারির সাথে জড়িত থাকতে পারে বলেও ধারণা করা হচ্ছে। সন্দেহভাজন ওই কর্মীর নাম আদ্রিয়ান ইউজিউসিকো। এর আগে ফিলিপিন্সের সিনেট শুনানিতে আরসিবিসির এই কর্মীর জড়িত থাকার অভিযোগও উঠে আসে। এই আদ্রিয়ানোই আরসিবিসি'র অন্যান্য শাখার কর্মীদের সাথে মায়ার বৈঠকের ব্যবস্থা করে দিয়েছিলেন।

এর আগে অর্থ পাচারে ব্যবহৃত চারটি ভুয়া অ্যাকাউন্টের মধ্যে 'জেসি ল্যাগরোসাস' অ্যাকাউন্টটিতে আদ্রিয়ানোর ছবিই ব্যবহার করা হয়। আদ্রিয়ানো ছাড়াও দেগুইতোর পরিচিত অন্য ব্যাংকের আরো একজন কর্মী এ ঘটনায় জড়িত থাকতে পারে বলেও ধারণা করছেন আরসিবিসি গ্রুপের আইনজীবী মিশেল এস্তাভিলো। এদিকে, অনুমতি ছাড়াই জাল অ্যাকাউন্ট খুলে তাতে অর্থ লেনদেন করার অভিযোগে মায়া ও টোরেসের বিরুদ্ধে আলাদা মামলা করার কথা জানিয়েছেন ফিলিপিন্সের ব্যবসায়ী উইলিয়াম গো'র আইনজীবী রোমান এসগুয়েরা।