২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজশাহীর মোহনগঞ্জ বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ২২ দোকান ছাই ॥ ৫০ দোকানে লুটপাট

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার মোহনগঞ্জ বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ২২টি দোকান পুড়ে গেছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে তেলের ডিপো থেকে এ আগুনের সুত্রপাত ঘটলে বাজারের আতঙ্কিত ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষ ছুটোছুটি করতে গিয়ে ২০ জন আহত হয়েছেন। এ সময়ে প্রায় ৫০টি দোকানে লুটপাটের ঘটনাও ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার মোহনগঞ্জ বাজারে হাটের দিন ছিল। বিকেলে লিটন নামে এক ব্যক্তির তেলের ডিপোতে যমুনা কোম্পানির একটি লরি থেকে তেল নামানোর কাজ চলছিল। ওই সময় অসাবধানতাবশত সেখানে আগুন লেগে যায়। বিকেলের ওই ঘটনার পরপরই আগুন দ্রুত আশেপাশের ৬টি কাপড়ের দোকানে ছড়িয়ে পড়লে নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়।

হাটে উপস্থিত সাধারণ মানুষ ও ব্যবসায়ীরা ওই সময় আতঙ্কে ছুটোছুটি করতে থাকেন। ঘটনার সময় হাটে উপস্থিত ও আশেপাশের গ্রাম থেকে ছুটে আসা মানুষ মুদিখানা, মনোহারি, তরি-তরকারির প্রায় ৫০টি দোকানে লুটপাট চালায়। আতঙ্কে দৌড়াদৌড়ি করতে গিয়ে ২০ জন আহত হয়।

স্থানীয় লোকজন বাগমারা ও পুঠিয়া দমকল ইউনিটকে সংবাদ দিলে তারা দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে প্রায় দুই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুনে ২২টি দোকানের বিভিন্ন মালামাল পুড়ে গেছে। এতে প্রায় কয়েক কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে দমকল বিভাগের কর্মিরা জানিয়েছেন।

দমকল সুত্র জানায়, আগুনে যমুনা ওয়েলের লরি ও একটি পান বোঝাই ট্রাকও পুড়ে গেছে। হাটের দিন হওয়ায় ভিড়ও ছিলো বেশি। সে কারণে সাধারণ মানুষের উপস্থিতিতে আগুন নেভাতে দমকল বিভাগের কর্মিদের অনেক বেগ পেতে হয়েছে।

বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মতিয়ার রহমান জানান, আগুন লাগার পরে ব্যবসায়ীরা যে যার মতো করে আশেপাশের দোকানগুলোর মালামাল রক্ষা করার চেষ্টা করে। এতে ৫০টির মতো দোকানের মালামাল লুটের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তিনি আরো জানান, পুলিশ অগ্নিকাণ্ডের সংবাদ পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে। সন্ধ্যা নাগাদ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ এসেছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

নির্বাচিত সংবাদ