১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঐকমত্যের সরকার গড়তে চাই

  • রুশ বার্তা সংস্থাকে আসাদ ॥ যুক্তরাষ্ট্র ও বিরোধীদের প্রত্যাখ্যান

সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ বুধবার পুনরায় একটি জাতীয় ঐকমত্যের সরকার গঠনের আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, বিরোধীরাসহ একটি নতুন সিরীয় সরকার নিয়ে একমত হওয়া কঠিন হবে না। তবে সিরিয়ার ভবিষ্যত রাজনৈতিক প্রক্রিয়ায় ফেডারেল শাসনব্যবস্থা প্রবর্তনের যে সুনির্দিষ্ট প্রচেষ্টা চলছে তা তিনি সরাসরি প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, সিরিয়ার মতো ছোট রাষ্ট্রে এই ব্যবস্থা বাস্তবায়ন করা সম্ভব নয়। বিরোধীরা বুধবার আসাদের আহ্বানের প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, তিনি প্রেসিডেন্ট থাকা অবস্থায় কোন প্রশাসন বৈধ হবে না। যুক্তরাষ্ট্রও বলেছে, আসাদের অন্তর্ভুক্তিতে এ ধরনের কোন প্রস্তাব সফল হবে না। খবর এএফপি ও ইয়াহু নিউজের।

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা রিয়া নভোস্তিতে আসাদের একটি সাক্ষাতকার বুধবার প্রকাশিত হয়েছে। ওই সাক্ষাতকারে আসাদ বলেছেন, এক সপ্তাহের মধ্যেই একটি খসড়া নতুন সংবিধান প্রস্তুত হতে পারে এবং বিরোধী দল, নির্দলীয় ও সরকারের অনুগতদের নিয়ে একটি ঐকমত্যের সরকার গঠন সম্ভব। তবে সিরিয়ার বিরোধীরা আসাদের মন্তব্য প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, আসাদের অধীনে আরেকটি সরকার নয়, পূর্ণ ক্ষমতাসহ একটি অন্তর্বর্তী সরকার গঠনের মাধ্যমে সিরিয়ার রাজনৈতিক সমাধান হতে পারে। সিরিয়ায় বিরোধী হাই নেগোসিয়েশনস কমিটির জর্জ সাবরা বলেছেন, বাশার আল-আসাদের প্রস্তাবের সঙ্গে রাজনৈতিক প্রক্রিয়ার কোন সম্পর্ক নেই। সিরিয়ার চলমান সংঘর্ষ বন্ধের লক্ষ্যে গঠিত সম্ভাব্য সরকারে বাশার আল আসাদের অন্তর্ভুক্তি মেনে নেবে না যুক্তরাষ্ট্র। হোয়াইট হাউস মুখপাত্র জশ আর্নেস্ট বলেছেন, সিরিয়ার জন্য সম্ভাব্য কোন সরকারেই আসাদকে অন্তর্ভুক্ত করা যাবে না। আমি জানি না, আসাদ কিভাবে জাতীয় ঐকমত্যের সরকারের অংশ হিসেবে নিজেকে কল্পনা করছেন। আসাদের এ ধরনের প্রস্তাব অবশ্যই আমাদের কাছে কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। এদিকে বিরোধীদের এমন দাবিকে প্রত্যাখ্যান করে অন্তর্বর্তী সরকারের ধারণাকে অযৌক্তিক ও অসংবিধানিক বলেছেন আসাদ। তিনি বলেন, এ জন্যই একটি জাতীয় ঐকমত্যের সরকার গঠন করতে হবে, যে সরকার একটি নতুন সংবিধান তৈরি করবে। প্রেসিডেন্ট আসাদকে চূড়ান্তভাবে সরিয়ে দেয়ার লক্ষ্যে বিরোধী গোষ্ঠীগুলোর পক্ষ থেকে জেনেভা শান্তি আলোচনায় সিরিয়ার জন্য পূর্ণ ক্ষমতার অধিকারী একটি অন্তর্বর্তী সরকার গঠনের প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। জেনেভায় ৯ এপ্রিল পুনরায় এই আলোচনা শুরু হবে।

সিরিয়ায় ফেডারেল শাসনব্যবস্থা নিয়ে সাক্ষাতকারে আসাদ বলেছেন, যে ধরনের রাষ্ট্রে বিভিন্ন সমাজের মানুষের পক্ষে একসঙ্গে বসবাস করা সম্ভব নয়, সেসব রাষ্ট্রের জন্য ফেডারেল শাসনব্যবস্থা প্রয়োজন। কিন্তু সে ধরনের কোন সমস্যা সিরিয়ার ইতিহাসে কখনও ছিল না, এখনও নেই। সিরিয়ার কুর্দি জনগোষ্ঠীর পক্ষ থেকে প্রথম সিরিয়ার জন্য ফেডারেল শাসনব্যবস্থার প্রস্তাব দেয়া হয়। সম্প্রতি তারা তাদের নিয়ন্ত্রিত কয়েকটি প্রদেশে এই শাসনব্যবস্থা প্রবর্তনের ঘোষণা দিয়েছে। অবশ্য সিরিয়া বিষয়ক জেনেভা আলোচনায় অংশগ্রহণকারী সিরিয়ার প্রতিনিধিদল কুর্দিদের এ ঘোষণা প্রত্যাখ্যান করেছে। সাক্ষাতকারে আসাদ আরও বলেন, বেশিরভাগ কুর্দি জনগোষ্ঠী একটি অখণ্ড সিরিয়ায় বসবাস করতে চায়। রাজনৈতিকভাবে তারা একটি শক্তিশালী কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে থাকতে চায়, ফেডারেল শাসনব্যবস্থায় নয়। আসাদ বলেছেন, টানা পাঁচ বছরের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে দেশটির অবকাঠামো ধ্বংসের কারণে অন্তত ২০ হাজার কোটি ডলার ক্ষতি হয়েছে। রুশ বিমান হামলা ও বিশেষ বাহিনীর সহায়তায় রবিবার জঙ্গী সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) হাত থেকে প্রাচীন পুরাতাত্ত্বিক শহর পালমিরা পুনর্দখল করে আসাদ বাহিনী। সিরিয়ার রাজধানী দামেস্ক, দেশের পূর্ব এলাকাসহ ইরাক সীমান্তে যাতায়াতের মূল সড়কটি পালমিরার ওপর দিয়ে গেছে এবং আইএসের মূল ঘাঁটি দেইর আল-জোর প্রদেশ ও রাকায় যাওয়ার পথও খুলে গেছে। তাই এ শহরটি সামরিক দিক থেকে খুব গুরুত্বপূর্ণ। এ বিষয়ে আসাদ বলেন, পালমিরাকে মুক্ত করার পর আমাদের এখন আশেপাশের এলাকাগুলো অভিযান চালানো প্রয়োজন, বিশেষ করে দেইর আল-জোরের মতো দেশের পূর্বাঞ্চলের দিকে। একই সময়ে আমাদের রাকার দিকে অভিযান শুরু করা প্রয়োজন। কারণ এটি বর্তমানে আইএসের প্রধান শক্ত ঘাঁটি। তিনি আরও বলেন, সিরীয় সেনাবাহিনী দেশের প্রত্যেকটি অঞ্চল মুক্ত করতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। আর এসব করতে আমরা আমাদের মিত্রদের সহায়তা পেয়েছি এবং এই সাফল্য অর্জনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ রাশিয়ার সহায়তা।