২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পাকিস্তানে বোমা হামলার পর নিরাপত্তা দাবি খ্রীস্টানদের

এক বছর আগে পাকিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় লাহোর শহরের খ্রীস্টান বসতিতে এক গির্জার বাইরে রবিবারের প্রার্থনাকালে পাকিস্তানী তালেবানের উপদলের এক সদস্যের আত্মঘাতী বোমা হামলার হাত থেকে ওয়াসিফ শসিহ (১৬) কোনভাবে বেঁচে গিয়েছিল। খবর এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের। গত ইস্টার সানডেতে একাই তালেবান উপদল জামায়াত-উল-আহরার লাহোরের এক পার্কে আরেক আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী পাঠালে ওয়াসিফ মারা যায়। পরিবারের লোকজনে ভরা পার্কটিতে তখন অন্তত ২৯ শিশুসহ ৭২ ব্যক্তি নিহত হয়। উপদলটি এক সময়ে ইসলামিক স্টেটের প্রতি সমর্থন করেছিল। এ হামলার দু’দিন পর খ্রীস্টান সম্প্রদায়ের লোকজন ক্রমশ অসহায় বোধ করছে। তারা তাদের নিরাপত্তা রক্ষায় আরও ব্যবস্থা নিতে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ পাকিস্তানের সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে।

ক্রাইস্ট চার্চ ভিকার ইরশাদ আশনাজ বলেন, সন্ত্রাসীরা আমাদের সম্প্রদায়ের ওপর আক্রমণ চালাতে এত উৎসাহী ছিল না। এখন তাদের সব দৃষ্টি আমাদের ওপরই পড়েছে। সম্ভবত এখন সরকারেরও আমাদের দিকে মনোযোগ দেয়ার সময়। আশনাজ বলেন, এসব লোক অবাধে ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং কেউই তাদের বাধা দিচ্ছে না।

ভিয়েতনামে ন্যাশনাল এ্যাসেম্বলিতে প্রথম নারী চেয়ারপার্সন

কমিউনিস্ট রাষ্ট্র ভিয়েতনামে ন্যাশনাল এ্যাসেম্বলিতে এই প্রথম নারী চেয়ারপার্সনের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। এটি দেশটির সবচেয়ে চতুর্থ ক্ষমতাময় পদ। বৃহস্পতিবার সরকার পরিচালিত ভিটিভিতে এ কথা বলা হয়। খবর এএফপি’র।

বৃহস্পতিবার সকালে ৫শ’ সদস্যবিশিষ্ট আইন পরিষদে ভোটাভুটিতে অভিজ্ঞ আইনপ্রণেতা ও কমিউনিস্ট পার্টির কর্মকর্তা নগুয়েন থি কিম নগান ৯৫.৫ শতাংশ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। নির্বাচিত হওয়ার পর নগান (৬১) সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, আমি দেশ, জনগণ ও সংবিধানের প্রতি আমার দৃঢ় আনুগত্য প্রকাশ করছি। ভোটাভুটিকালে ব্যালট পেপারে আর কোন প্রার্থীর নাম ছিল না।

ছত্তিশগড়ে স্থলমাইন বিস্ফোরণে সাত জওয়ান নিহত

ভারতের মধ্যপ্রদেশের ছত্তিসগড়ের দন্তেওয়াড়ার মেলাওয়াড়ায় বুধবার মাওবাদীদের পাতা ল্যান্ডমাইন বিস্ফোরণে সাত জন সেন্ট্রাল রিজার্ব পুলিশ ফোর্সের (সিআরপিএফ) জওয়ান নিহত হয়েছে। খবর এনডিটিভি ও ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের।

দন্তেওয়াড়ার পুলিশ সুপার কে কাশ্যপ সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, একটি ট্রাকে করে প্রশাসনিক কাজে কুওয়াকোন্ডা যাচ্ছিল সিআরপিএফের একটি দল। দলটির নেতৃত্বে ছিলেন সাব ইনস্পেক্টর পদের এক কর্মকর্তা। প্রত্যেকেই সাদা পোশাকে ছিলেন। মেলাওয়ান্ডা এলাকার কাছে বিকেল চারটে নাগাদ একটি শক্তিশালী মাইন বিস্ফোরণে হঠাৎ গাড়িটি। ঘটনাস্থলেই সাতজন নিহত হন। নিহতরা সকলেই সিআরপি বাহিনীর ২৩০ নম্বর ব্যাটেলিয়ানের সদস্য ছিলেন। আর প্রত্যেকেই মাওবাদী-বিরোধী অভিযানে বিশেষজ্ঞ। বিস্ফোরণ এতই শক্তিশালী ছিল যে, ওই রাস্তায় প্রায় চার ফুট গভীর গর্ত তৈরি হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। বিস্ফোরণের সঙ্গে সঙ্গে গাড়িটি টুকরো টুকরো হয়ে যায়। মাওবাদীরা অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে পাকা রাস্তার নিচে ওই মাইন পেতে রেখেছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ।