১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ফরিদপুরে এসএসসি পরীক্ষার্থীসহ সারাদেশে বজ্রপাতে আট জনের মৃত্যু

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ বৃহস্পতিবার বজ্রপাতে দেশের বিভিন্ন স্থানে আটজন মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আহত হয়েছে দুজন। ফরিদপুরের এক এসএসসি পরীক্ষার্থী, মোরেলগঞ্জে দুজন শ্রমিক, মুন্সীগঞ্জের মোল্লাপাড়ায় দুই কিশোর, নেত্রকোনায় একজন এবং কুমিল্লায় বজ্রপাতে দুই শ্রমিক মারা গেছে। খবর স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতার।

ফরিদপুর সদর উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের কৃষ্ণনগর গ্রামে বৃহস্পতিবার দুপুর দুইটার দিকে হাসান মোল্লা (১৬) নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থী মারা গেছে। মৃত হাসান ওই গ্রামের জাভেদ মোল্লার ছেলে। সে এ বছর স্থানীয় কৃষ্ণনগর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। হাসান বাড়ির পাশে মাঠ থেকে গরু আনতে গেলে বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই মারা যায়।

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে বজ্রপাতে দুই শ্রমিক মারা গেছে। আহত হয়েছে একজন। বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের কামলা গ্রামে ছোট কুমারখালী গ্রামের মৃত বিনোদ মজুমদারের ছেলে কালিপদ মজুমদার (৫০) ও গড়ঘাটা গ্রামের আব্দুল আজিজ ফরাজীর ছেলে রফিকুল ইসলাম (২৫) একটি কলাবাগানে কাজ করার সময় বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় এবং সাইফুল শেখ (২৫) নামে অপর এক শ্রমিক আহত হয়। তাকে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মুন্সীগঞ্জের চর কিশোরগঞ্জের মোল্লাপাড়ায় বৃহস্পতিবার দুপুরে বজ্রপাতে অনীক (১৫) ও ফেরদৌস (১৭) নামে দুইজন নিহত ও গফুর (২২) নামে একজন আহত হয়েছে। গফুরকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নেত্রকোনার সদর উপজেলার মেদেনী ইউনিয়নের মেদেনী-নওয়াপাড়া গ্রামে বৃহস্পতিবার বেলা দুইটার দিকে বজ্রপাতে আব্দুল খালেক নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। নিহত কৃষক ওই গ্রামের নবী হোসেনের ছেলে। স্থানীয়রা জানায়, ঘটনার সময় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির সঙ্গে বজ্রপাত হচ্ছিল। মাঠ থেকে গরু আনতে গেলে বজ্রপাতে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান। কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর উপজেলার কোম্পানীগঞ্জের বাখরনগর গ্রামের নিউ এইচবিসি ইটভাঁটিতে কাজ করার সময় বৃষ্টি ও ঝড় শুরু হলে বজ্রপাতে ইটভাঁটির শ্রমিক মোঃ আলী (২৫) ও আল আমিন (৩০) নামের দুই শ্রমিক মারা গেছে। এ সময় অগ্নিকা-ে আরও ২০ জন শ্রমিক আহত হয়েছে। আহতদের দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।