১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কারবার-আজারেঙ্কা সেমিফাইনালে

কারবার-আজারেঙ্কা সেমিফাইনালে

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ মিয়ামি ওপেনে দুর্দান্ত গতিতেই ছুটছেন ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা আর এ্যাঞ্জেলিক কারবার। বুধবার দারুণ জয়েই টুর্নামেন্টের শেষ চারের টিকেট নিশ্চিত করেন তারা। বেলারুশের ১৩তম বাছাই ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা এদিন ৬-৪ এবং ৬-২ সেটে পরাজিত করেন গ্রেট ব্রিটেনের জোহান্না কন্টেকে। দিনের অন্য ম্যাচে জার্মানির দ্বিতীয় বাছাই এ্যাঞ্জেলিক কারবার ৬-৩ এবং ৬-২ সেটে হারান আমেরিকান টেনিস তারকা মেডিসন কেইসকে।

গত দুই মৌসুমে ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কাকে টেনিস কোর্টের বাইরে ছিটকে দিয়েছিল চোট। যার দখল কাটিয়ে চলতি মৌসুমেই আবারও লড়াইয়ে ফিরেন তিনি। নিজের শ্রেষ্ঠাত্বের প্রমাণ দিয়েছেন ইন্ডিয়ান ওয়েলসেই। আমেরিকান টেনিসের জীবন্ত কিংবদন্তি সেরেনা উইলিয়ামসকে হারিয়ে টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতে। ইন্ডিয়ান ওয়েলসের পারফর্মেন্সের ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছেন মিয়ামি ওপেনেও। টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই নিজের সেরাটা ঢেলে দিচ্ছেন তিনি। কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রিটেনের প্রতিভাবান খেলোয়াড় জোহান্না কন্টের বিপক্ষেও অপ্রতিরোধ্য ছিলেন তিনি। তবে ২৪তম বাছাই কন্টের বিপক্ষে প্রথম সেটের লড়াইটা ছিল হাড্ডাহাড্ডি। যে কারণে শেষ আটের বাধা পেরিয়ে দারুণ রোমাঞ্চিত কারবার। ম্যাচ শেষে বেলারুশ সুন্দরী বলেন, ‘আমি মনে করি আমাদের দুজনেই জন্যই এটা ছিল উচ্চমানের একটা ম্যাচ। দুজনেই অনেক সুযোগ পেয়েছি। তবে আমার সার্ভ খুবই ভাল হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ভাল খেলতে পেরেছি। সর্বোপরি আজ আমার সার্বিক পারফর্মেন্সই খুব ভাল ছিল।’

ক্যারিয়ারে দুটি গ্র্যান্ডসøাম জিতেছেন আজারেঙ্কা। তার দুটিই আবার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে। ২০১২ সালে প্রথম আর পরের বছরে টানা দ্বিতীয় গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট জয়ের স্বাদ পান তিনি। চোটের কারণে মাঝের সময়টা বিফলে গেলেও আবারও মেজর টুর্নামেন্টেই দৃষ্টি তার। তবে তার আগে মিয়ামি ওপেন নিয়েও বেশ সতর্ক আজারেঙ্কা। তাই তো প্রতিপক্ষের বিপক্ষে শান্তভাবে, দেখেশুনে খেলছেন তিনি। যেমন কন্টের বিপক্ষে ম্যাচের শেষেই ২৬ বছর বয়সী এই তারকা বলেন, ‘মানসিকভাবে আমি খুবই শান্ত ছিলাম। যেটা সঠিক সেটাই করেছি। প্রয়োজনে আক্রমণাত্মক খেলেছি। তবে প্রকৃতপক্ষেই ভাল সময়ের জন্য অপেক্ষা করেছি।’

বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক নাম্বার ওয়ান তারকা ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কার সেমিতে প্রতিপক্ষ এখন এ্যাঞ্জেলিক কারবার। জার্মান তারকারও সময়টাও এখন দারুণ কাটছে। কোয়ার্টার ফাইনালে আমেরিকার তরুণ প্রতিভাবান তারকা মেডিসন কেইসকে হারান তিনি। যিনি প্রথমবারের মতো মিয়ামি ওপেনের সেমিফাইনালের টিকেট কেটেছিলেন। তবে হারলেও কারবারের বিপক্ষে লড়াই করার চেষ্টা করেছেন কেইস। আর কেইসকে হারিয়ে দারুণ সন্তুষ্ট কারবার। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, ‘এ রকম ম্যাচ খেলতে পারাটা খুবই ভাল বিষয়। আমার মানসিক অবস্থা খুবই ভাল ছিল। প্রতিপক্ষ হিসেবে মেডিসন সবসময়ই লড়াকু। আমি এটা খুব ভালই জানি কারণ এর আগে আমরা অনেক হাড্ডাহাড্ডি ম্যাচ খেলেছি। এখানে গত কয়েক ম্যাচে সে অসাধারণ পারফর্ম করেছে। যে কারণে তার বিপক্ষে জিততে হলে যে আমার সেরাটাই দিতে হবে তা আগে থেকেই জানতাম।’ তবে কারবারের আসল লড়াইটা এখন শেষ চারে। সেমিফাইনালে যে ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কার মুখোমুখি হতে হবে তাকে। যদিওবা পারফর্মেন্সের বিচারে এখন দুজনই সমানে সমান। কেননা এ্যাঞ্জেলিক কারবার এই মৌসুমেই ক্যারিয়ারের প্রথম গ্র্যান্ডসøাম জিতেছেন। অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে সেরেনা উইলিয়ামসকে পরাজিত করে। আর আজারেঙ্কা গত সপ্তাহে ইন্ডিয়ান ওয়েলসের শিরোপা জিতেছেন সেই সেরেনাকে বিদায় করেই। তবে মুখোমুখি লড়াইয়ে ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা অনেক এগিয়ে।