২০ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কবিতা

লড়াই করে

স.ম. শামসুল আলম

মাথায় ছিল পাহাড় সমান দুঃশাসনের বোঝা

বহন করা ছিল মোটেও সোজা?

অনেক কষ্টে সেই বোঝাটা নামালাম

অত্যাচার ও শাসন শোষণ

লড়াই করে থামালাম।

এই বাংলায় বাঙালিদের সব অধিকার কেড়ে

যারা আসন পেতেছিল গেড়ে

তাদেরকে উচ্ছেদ করে ঠিক

বানের জলে ভাসালাম

লড়াই করে ছিনিয়ে বিজয়

হাসলাম এবং হাসালাম।

নাচতে পারি আনন্দে আজ

ধিনাক ধিনাক তাধিন

লড়াই করে আমরা হলাম স্বাধীন।

বছরের এই স্বাধীনতায়

রবিউল হুসাইন

বছরের এই স্বাধীনতায়

পড়েছি আমি গভীর চিন্তায়

আজ পঁয়তাল্লিশ বছর দেশের বয়স

তবু কাটছে সময় বসেই অলস

যেমনি ছিল তেমনি আছে

কীসের আশায় জীবন বাঁচে

স্বপ্ন ছিল অনেক কিছু

সেসব নিয়েই চলছি পিছু

আমরা সবাই আলোর দিকে

এগিয়ে চলি স্বপ্ন বুকে

সামনে বাধা আসুক যতই

সফলতা খুঁজে পাবই

এমনি করেই অঙ্গীকারের

সম্মুখে যাই প্রতিবারে

স্বাধীনতা

নাসের মাহমুদ

আজকে আকাশ অন্য রঙের

আজকে আলোর দিন,

মুক্তিযোদ্ধা-সব বাঙালি

শুভেচ্ছা আজ নিন।

আজকে থেকে বাংলা স্বাধীন

লাল সূর্যেও মাসে-

একটি ভয়াল রাতের শেষে

এই ঘোষণা আসে।

মহান মুজিব দেন ঘোষণা

বেতার বার্তা করে,

সারা দেশে হয় জানানো

ওয়্যারলেসে ধরে।

ত্রিশ লক্ষ প্রদীপ নিভে

একটি প্রদীপ জ্বলে,

লাল সবুজের জমিন শোনো-

‘আমরা স্বাধীন’ বলে।

স্বাধীনতার কথা

শামীম খান যুবরাজ

স্বাধীনতা শব্দটি আমাদের

কী করে হলো, কী করে?

জানতে হলে খোঁজ নিতে হবে

একাত্তরের শিকড়ে।

৭ মার্চে বজ্রকণ্ঠ বেজে ওঠে শেখ মুজিবেরÑ

দাঁত ভাঙতে প্রস্তুত থাকো জালিম শোষক কু-জীবের।

২৫ মার্চে হায়েনারা হাসে

বাঙালির রক্ত ঝরিয়েÑ

যার যা আছে বাঙালি প্রস্তুত

দৃপ্ত শপথ করি-এ।

অস্ত্র হাতে জলে-জঙ্গলে মৃত্যুকে সাথী করে

স্বজন ফেলে রক্ত ঢেলে জ্বালতে বাতি ঘরেÑ

কত মার বুক খালি হয়ে যায়

কত বোন ভাই হারায়,

তবু থামেনি ভেঙে পড়েনি

বাঙালিরা ঘুরে দাঁড়ায়।

দীর্ঘ ন’মাস লড়ে লড়াকু

বিজয় ছিনিয়ে আনে,

শহীদ ভাইবোন আজো বেঁচে আছে

কোটি বাঙালির প্রাণে।

স্বাধীন দেশ

বাবুল তালুকদার

মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছে

বীর বাঙালির ছেলে

প্রাণ দিয়েছে যুদ্ধ করেছে

রক্ত দিয়েছে ঢেলে।

অশ্রু চোখে বাঙালি মায়ের

বেদনায় ভরা বুক

বেঁচে নেই আজ সোনার ছেলে

অন্তরে পেয়েছে দুঃখ।

খেতাব পেয়েছে, ভাতা দিয়েছে

খোকা নেই আমার ঘরে

যুদ্ধ করেছে, স্বাধীন হয়েছে

মন গিয়েছে ভরে।

আল বদরের বিচার হয়েছে

বাঙালি পেয়েছে শান্তি

হাসি খুশি আজ দেশের মানুষ

দূর হয়েছে ক্লান্তি।

স্বাধীনতা আনে

রানা কুমার সিংহ

ফুল পাখি আর নদীর সাথে

তারা ভরা সন্ধ্যা রাতে

কী অনাবিল খেলায় মাতে

দুষ্টু খোকা রোজ,

বটের ছায়া খোকার প্রিয়

তোমরা খোকার খবর নিও

আর খোকাকে পৌঁছে দিও

স্বাধীনতার খোঁজ।

লক্ষ খোকার জীবন দানে

এদেশ স্বাধীনতা আনে

তাইতো ছড়া কাব্য গানে

খোকারা হররোজ।

মুক্ত এবং স্বাধীনতা

এসএম শহীদুল আলম

মুক্ত আলো মুক্ত বাতাস মুক্ত সোনার দেশ,

মুক্ত আশা মুক্ত ভাষা ছন্দ অবশেষ।

মুক্ত আকাশ মুক্ত ভূমি মুক্ত সবুজ বন,

মুক্ত সাগর মুক্ত নদী মুক্ত মায়ের ধন।

মুক্ত পাখি মুক্ত ডানা মুক্ত মধুর ক্ষণ,

মুক্ত হাসি মুক্ত বাঁশি মিষ্টি আলাপন।

মুক্ত কলম মুক্ত লেখা মুক্ত সুরের গান,

মুক্ত জীবন মুক্ত রেকর্ড ঈশ্বরের এক দান।

এই মাত্রা পাওয়া