২০ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মামলা জট কমাতে সান্ধ্য আদালত চালুর উদ্যোগ নেয়া হবে ॥ প্রধান বিচারপতি

নিজস্ব সংবাদদাতা, সাভার, ১ এপ্রিল ॥ দেশে মামলা জট কমাতে ও বিচার প্রার্থীদের রক্ষা করতে সান্ধ্য আদালত চালুর উদ্যোগ নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা।

শুক্রবার সকালে সাভারের খাগানে ব্র্যাক সেন্টারে সুপ্রীমকোর্ট আয়োজিত অধঃস্তন আদালতের বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তাদের বিচারিক কাজের যথাযথ মূল্যায়ন এবং সাফল্য নির্ধারণের মানদ- নিরূপণ শীর্ষক দু’দিনব্যাপী কর্মশালার উদ্বোধন করতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন। এ কর্মশালায় বিভিন্ন স্তরের ৪০ জন বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তা অংশ নেন।

প্রধান বিচারপতি বলেন, ১৬ কোটি মানুষের দেশে বিচারক আছেন মাত্র ১৫শ’। এত কম সংখ্যক বিচারককে কাজ করতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। বিভিন্ন সমস্যার পাশাপাশি আমাদের বিচার কক্ষের স্বল্পতা রয়েছে। ১৭৩ জন বিচারককে পালাক্রমে দায়িত্ব পালন করতে হয়। যে কারণে মামলার জটে আটকে পড়েছে প্রায় ৩০ লাখ মামলা। এ মামলা নিষ্পত্তিতে আইনজীবী ও সরকারের সাড়া পাওয়া গেলে অচিরেই দেশে সান্ধ্য আদালত চালু করা হবে।

তিনি আরও বলেন, দেশে গণতন্ত্র, আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা আর মানবাধিকার রক্ষার জন্য আমাদের সংবিধান পৃথিবীর অন্যতম শ্রেষ্ঠ সংবিধান। আমরা যে কোন মূল্যে এ সংবিধানের মর্যাদা রক্ষায় বদ্ধপরিকর।

তিনি বলেন, পঞ্চদশ সংশোধনীর মাধ্যমে আমাদের সংবিধানে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলের সব পথ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। বিধান রাখা হয়েছে এ আইন ভঙ্গ করলে সর্বোচ্চ শাস্তির।

ইউএস এইডের সহযোগিতায় আয়োজিত এ কর্মশালায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্শা বুুম বার্নিকাট ও সুপ্রীমকোর্টের রেজিস্টার জেনারেল সৈয়দ আমিনুল ইসলাম।