২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বোমাতঙ্কের বস্তুটি ছিল ‘ট্রেনিং ডিভাইস’ ॥ পুলিশ

বোমাতঙ্কের বস্তুটি ছিল ‘ট্রেনিং ডিভাইস’ ॥ পুলিশ

অনলাইন ডেস্ক ॥ ম্যানচেস্টারের ওল্ডট্রাফোর্ডে সন্দেহজনক যে বস্তুটির কারণে বোমাতঙ্ক তৈরি হয়েছিল এবং ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছিল সেই বস্তুটি একটি সাধারণ 'ট্রেনিং ডিভাইস' ছিল বলে জানাচ্ছে পুলিশ।

গতকাল রবিবার ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও বোর্নমউথের ম্যাচের নির্ধারিত সময়ের আগে স্টেডিয়ামে একটি সন্দেহজনক প্যাকেট পাওয়া যাবার পর খেলাটি স্থগিত করে দেয়া হয়।

পরে সামরিক বোমা বিশেষজ্ঞরা এসে ওই সন্দেহজনক প্যাকেটটিতে একটি 'নিয়ন্ত্রিত বিস্ফোরণ' ঘটান।

পুলিশ বলছে বুধবার একটি অনুশীলন শেষ হবার পর এই ট্রেনিং ডিভাইসটি ভুলক্রমে একটি প্রাইভেট কোম্পানি এখানেই রেখে যায়। আর ওই জিনিসকে ঘিরেই রোববার ওল্ড ট্রাফোর্ডে তৈরি হয় আতঙ্ক।

গ্রেটার ম্যানচেস্টারের মেয়র এবং পুলিশ ও ক্রাইম কমিশনার টনি লয়েড বলেছেন এই পরিস্থিতি কোনওভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। এই ঘটনাটি কিভাবে ও কেন ঘটলো এবং কারা এর জন্য দায়ী এ বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করার কথা বলেছেন মি: লয়েড।

মি: লয়েড বলেছে, একটা ভুলের কারণে যে সমর্থকেরা ম্যান ইউ ও বউরমউথের ম্যাচটি দেখতে দূর-দূরান্ত থেকে এসেছিলেন তাদের হয়রানির মধ্যে পড়তে হয়েছে, বিপুল সংখ্যক পুলিশের সময় নষ্ট হয়েছে, পাশাপাশি বোম স্কোয়াডও ব্যবহৃত হয়েছে অযথাই।শুধুশুধু প্রায় দশ হাজার দর্শকদের বিপদের মধ্যে ফেলা হয়েছে”।

উল্লেখ্য রোববার খেলা শুরু হবার কয়েক মিনিট আগেই সন্দেহজনক প্যাকেটটি পাওয়া যায়, এবং হাজার হাজার দর্শককে মাঠ থেকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। ডেকে আনা হয় সামরিক বিশেষজ্ঞদের।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড আর বোর্নমউথের মধ্যেকার পরিত্যক্ত ম্যাচটি আগামীকাল মঙ্গলবার ব্রিটিশ সময় ৮টায় শুরু হবে বলে জানিয়েছে আয়োজকরা।

কর্তৃপক্ষ বলছে তারা সব টিকেট ফেরত দেবে এবং উভয় ক্লাবের টিকেট হোল্ডারদের বিনামূল্যে খেলা দেখতে দেবে।

ধারণা করা হচ্ছে এজন্য প্রায় তিন মিলিয়ন পাউন্ড খরচ হবে।

সূত্র: বিবিসি

নির্বাচিত সংবাদ