১৮ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পুঁজিবাজারে সূচক ও লেনদেন বেড়েছে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ টানা তিনদিনের দরপতন কাটিয়ে সোমবার মূল্য সূচকের কিছুটা উর্ধগতিতে লেনদেন শেষ হয়েছে পুঁজিবাজারে। আগের দিনের তুলনায় লেনদেনেও সামান্য বেড়েছে। এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) প্রায় ১২ শতাংশ লেনদেন বেড়েছে। বিনিয়োগকারীদের আশাবাদ দীর্ঘমন্দার পরে বাজারের এই তেজিভাব আরও কিছুদিন বজায় থাকবে। তবেই তারা কিছুটা ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে পারবেন।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, সোমবার ডিএসইতে ২৮৮ কোটি ৬৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে; যা আগের দিনের তুলনায় প্রায় ৩০ কোটি ৬৩ লাখ টাকা বেশি। রবিবার এ বাজারে লেনদেন হয়েছিল ২৫৮ কোটি ১ লাখ টাকা। এদিন ডিএসইতে মোট লেনদেনে অংশ নেয় ৩১৫ কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৬৭টি, কমেছে ৯৫টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৩টির শেয়ার দর।

সকালে সূচকের নেতিবাচক প্রবণতা দিয়ে লেনদেন শুরু হলেও কিছুক্ষণ পরে সূচকের তেজিভাব ফিরে আসে। একইসঙ্গে বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণও কিছুটা বাড়তে থাকে। দিনশেষে ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্যসূচক ১৩ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৪ হাজার ২৮৮ পয়েন্টে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ২ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়য়েছে এক হাজার ৫৩ পয়েন্টে। আর ডিএস৩০ সূচক ৬ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে এক হাজার ৬৬৬ পয়েন্টে।

খাতভিত্তিক বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, তিনদিন পরে পুঁজিবাজারে সূচকের ইতিবাচক প্রবণতার দিনে জ্বালানি এবং শক্তি খাতের কোম্পানিগুলো লেনদেনের আধিপত্য বজায় রেখেছে। দিনটিতে কোম্পানিগুলোর মোট ৫৫ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে, যা মোট লেনদেনের ২১ দশমিক ৩৭ ভাগ। প্রকৌশল খাতের কোম্পানিগুলোর মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৪৫ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের ১৭ দশমিক ৫৫ ভাগ। এরপরে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে বস্ত্র খাতটি। সারাদিনে খাতটির মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ২৭ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের ১০ দশমিক ৩৭ ভাগ।

ডিএসইতে লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলোÑ বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেম, ইউনাইটেড পাওয়ার, ডরিন পাওয়ার, লিন্ডে বিডি, স্কয়ার ফার্মা, বিএসআরএম লিমিটেড, স্কয়ার ফার্মা, আইটিসি, ব্র্যাক ব্যাংক, সামিট পোর্ট এলায়েন্স ও অলিম্পিক।

দর বৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলোÑ ড্রাগন সোয়েটার, ইউনাইটেড এয়ার, প্রাইম টেক্সটাইল, আইটিসি, ইসলামী ব্যাংক, ন্যাশনাল পলিমার, ফু-ওয়াং সিরামিক, ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্স ও জেমিনি সী ফুড।