২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গ্রাহকের তিন কোটি টাকা নিয়ে উধাও এনজিও

নিজস্ব সংবাদদাতা, সাভার, ১৮ মে ॥ ঋণ দেয়ার আশ্বাস দিয়ে গ্রাহকদের সঞ্চিত প্রায় তিন কোটি টাকা নিয়ে পালিয়ে গেছে সাভারে ‘সুর্য উদয় বহুমুখী সমবায় সমিতি’ নামের একটি বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা (এনজিও)। এতে সমিতির অন্তত ১৫শ’ গ্রাহক নিজেদের কষ্টার্জিত সঞ্চয়ের টাকা হারিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ জনতা উত্তেজিত হয়ে ওই সমিতির অফিসের সামনে অবস্থান সেয়। টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার খবর শুনে কয়েক নারী অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জানা গেছে, উপজেলার উলাইল বাজার এলাকার স্থানীয় একটি গার্মেন্টসের কর্মকর্তা মোঃ মনির হোসেন (৪০) ওই এলাকায় বছর খানেক আগে ‘সুর্য উদয় বহুমুখী সমবায় সমিতি’ নামে অফিস ভাড়া নিয়ে কিছু আসবাবপত্র ও কাগজপত্র রেখে গেন্ডা, উলাইল, কর্ণপাড়া, কাতলাপুর প্রভৃতি এলাকায় সুবিধা বঞ্চিত মানুষকে মোটা অংকের ঋণ দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে গ্রাহকদের কাছ থেকে সঞ্চয় আমানতের টাকা উত্তোলন করে। এভাবে এক বছরে বিভিন্ন এলাকা থেকে টাকা নিয়ে গ্রাহকদের দ্বিগুণ দিবে বলে সমিতিতে প্রায় তিন কোটি টাকা জমা হয়। প্রতারক চক্রটি মঙ্গলবার অফিসে তালা ঝুলিয়ে চম্পট দেয়। এদিন ঋণ নিতে এসে গ্রাহকরা তালাবদ্ধ দেখে অফিসের সামনে অবস্থান নেয়। বুধবার সকাল থেকেও গ্রাহকরা সমিতির সামনে অবস্থান অব্যাহত রাখে।

এক গ্রাহক বলেন, সমিতিতে তার এ পর্যন্ত ২ লাখ ২০ হাজার টাকা জমা হয়েছে। দু’দিন পর তাকে সুদসহ টাকা দেয়ার কথা ছিল। অপর এক নারী গ্রাহক বলেন, এ পর্যন্ত সমিতিতে তার এক লাখ ১৫ হাজার টাকা জমা হয়েছে। গ্রাহকরা জানান, সংস্থাটির মহাব্যবস্থাপক মনির হোসেন বিভিন্ন গ্রামের লোকজনের বাড়ি বাড়ি গিয়ে বলে যে, সমিতিতে এক লাখ টাকা জমা রাখলে এক বছর পরে এক লাখ টাকায় ৫০ হাজার ও ২ লাখ জমা রাখলে বছরে এক লাখ টাকা লাখ দেয়া হবে। এতে বিশ্বাস করে তারা সমিতিতে টাকা জমা রাখতে শুরু করে। পালিয়ে যাওয়ার পর থেকে সমিতির ওই কর্মকর্তা মনির হোসেনের মোবাইল ফোন বন্ধ রয়েছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল হাসান মোল্যা বলেন, তিনি খবরটি শুনেই পুলিশকে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিয়েছেন। মনির হোসেনের বাড়ি টাঙ্গাইল জেলায় বলে জানা গেছে। তিনি সাভারের কাতলাপুর এলাকায় বসবাস করতেন।

গতি পেয়েছে কেবি কলেজ

বাকৃবি সংবাদদাতা ॥ দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি, শিক্ষকদের সঙ্গে অসদাচরণ, অযথা হয়রানি ও মানসিক নির্যাতনসহ মোট ২১টি অভিযোগে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে অবস্থিত কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের (কেবি) অধ্যক্ষকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। আনীত অভিযোগ তদন্তে কমিটি গঠন করা হয়েছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখতে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নিয়োগ দেয়া হয়েছে। বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানিয়েছে কলেজ পরিচালনা পর্ষদ। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সাখাওয়াত হোসেন। বলা হয়, দশ বছর আগে ড. আতাউর রহমান তৎকালীন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের মদদে অবৈধভাবে কলেজের অধ্যক্ষ পদে যোগদান করেন। যোগদানের পর থেকে অর্থের বিনিময়ে তুলনামূলক খারাপ ফলাফলধারী শিক্ষার্থী ভর্তি করায় কলেজের মান হ্রাস পেতে থাকে। এ সময় কলেজ পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. ছৈয়দ সাখাওয়াত হোসেনসহ কলেজের ২৪ শিক্ষক ও প্রদর্শক উপস্থিত ছিলেন।

অস্ত্র ব্যবসায়ী গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ চারঘাট উপজেলার পাইটখালী এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিদেশী পিস্তল, দুটি ম্যাগাজিন ও পাঁচ রাউন্ড গুলিসহ এক অস্ত্র ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। মঙ্গলবার রাতে র‌্যাব রাজশাহীর একটি দল এ অভিযান চালায়। গ্রেফতার অস্ত্র ব্যবসায়ীর নাম মিলন উদ্দীন। সে একই উপজেলার ভাটপাড়া গ্রামের দেছের উদ্দীন মাস্টারের ছেলে। র‌্যাব জানায়, মিলন দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ অস্ত্র ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। বুধবার তাকে চারঘাট থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

ঝিনাইদহ পলিটেকনিকে ভাংচুর

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝিনাইদহ, ১৮ মে ॥ অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে ঝিনাইদহ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে ভাংচুর করেছে শিক্ষার্থীরা। বুধবার সকালে শিক্ষার্থীরা প্রধান ফটক বন্ধ করে বিক্ষোভ ও ভাংচুর করে। একপর্যায়ে তারা অধ্যক্ষের কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। সে সময় অধ্যক্ষ নিজের রুমে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রকৌশলী মিজানুর রহমান দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির অর্থসহ বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠানের টাকা আত্মসাত করেছেন। এসবের প্রতিবাদ করলে তিনি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে থাকেন।

মাদারীপুরে ফের রোগী ভোগান্তি

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাদারীপুর, ১৮ মে ॥ ‘মেডিক্যাল টেকনোলজিস্টদের জাতীয় দাবি বাস্তবায়ন পরিষদ’-এর পক্ষ থেকে ১০ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে দুই দিনব্যাপী কর্মবিরতি পালন করছে জেলার মেডিক্যাল টেকনোলজিস্টরা। বুধবার প্রথম দিনে সকাল ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত কর্মবিরতি পালনের সময় সদর হাসপাতালের সামনে মানববন্ধন করেন তারা। এ সময় বক্তব্য রাখেন স্যানিটারি ইন্সপেক্টরশিপ ওয়েলফেয়ার এ্যাসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি মজিবর রহমান উজ্জ্বল, জেলা কমিটির পক্ষে বিমল চন্দ্র ম-ল, জাহাঙ্গীর আলম, মৃত্যুঞ্জয় বালা প্রমুখ। এদিকে কর্মবিরতি চলাকালে সদর হাসপাতালসহ উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলোতেও ওষুধ বিতরণ, এক্স-রে, আলট্রাস্নোগ্রাম, ইসিজিসহ বিভিন্ন প্যাথলজিক্যাল পরীক্ষা বন্ধ থাকায় রোগীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

বখাটে গ্রেফতার দাবিতে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার, সাতক্ষীরা ॥ বখাটেদের হাতে নির্যাতিত মেধাবী ছাত্র সাদিদ ফারজিন অর্নবের আত্মহত্যায় প্ররোচনাকারীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে শিক্ষার্থীরা।

বুধবার বেলা ১১টায় সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সামনে বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা এই কর্মসূচী পালন করে। এ সময় তারা ‘অর্নবের আত্মহত্যায় প্ররোচনাকারীদের শাস্তি দাও’, ‘অর্নবের সুইসাইড নোট, তদন্ত কর, দোষীদের শাস্তি দাও’, ‘বখাটে রাহুলের শাস্তি চাই’, ‘বখাটে পাভেলের শাস্তি চাই’, ‘প্রতারকদের শাস্তি চাই’, ‘পেন্যাল কোড ৩০৫ ধারা গেল কোথায়’ প্রভৃতি সেøাগান সম্বলিত প্ল্যাকাড প্রদর্শন করে।