১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শেবাচিমে রোগীর স্বজনদের সঙ্গে চিকিৎসকদের সংঘর্ষ

শেবাচিমে রোগীর স্বজনদের সঙ্গে চিকিৎসকদের সংঘর্ষ

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রোগীর স্বজনদের প্রবেশকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার রাত সাড়ে দশটার দিকে চিকিৎসকদের সঙ্গে স্বজনদের হামলা-পাল্টা হামলা ও সংঘর্ষ হয়েছে। এতে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে চিকিৎসকদের হামলায় চার পুলিশ সদস্য আহত হন। এ ঘটনার পর ইন্টার্ন চিকিৎসকরা হাসপাতালের প্রধান ফটকগুলোতে তালা দিয়ে বিক্ষোভ শুরু করলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। খবর পেয়ে পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তারা বিক্ষুব্ধ চিকিৎসকদের দাবির প্রেক্ষিতে এএসআই মহিউদ্দিনকে সাময়িক বরখাস্তের ঘোষণা দিলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। তারপরও রাত দেড়টার দিকে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতির ঘোষণা করেন।

হামলা ও সংঘর্ষে রোগীর আটজন স্বজনসহ অপর আহতরা হলেন, মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সহকারী রেজিস্ট্রার পলাশ, শাহ আলম, পুলিশের এসআই গোলাম মোস্তফা, এএসআই মহিউদ্দিন, কনস্টেবল কাওসার হোসেন ও ফিরোজ রহমান।

জানা গেছে, সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত বাকেরগঞ্জের বাসিন্দা সিরাজুল ইসলাম চুন্নুকে (৪৫) রাত সাড়ে নয়টার দিকে শেবাচিমের পঞ্চম তলার সার্জারি ইউনিটে আনা হয়। এ সময় সার্জারি ইউনিট-৪ এর সহকারী রেজিস্ট্রার ডাঃ পলাশ রোগীর স্বজনকে ওয়ার্ডের বাইরে বের হতে বললে উভয়ের মধ্যে বাগ্বিত-া শুরু হয়। বিষয়টি অপর ইন্টার্ন চিকিৎসকদের মাঝে ছড়িয়ে পড়লে তাৎক্ষণিকভাবে তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে রোগীর স্বজনদের ওপর চড়াও হয়। এ সময় উভয়পক্ষের মধ্যে হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের বেশ কয়েকটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা চালায়। এ সময় চিকিৎসকরা চার পুলিশ সদস্যদের ওপর হামলা চালিয়ে আহত করে হাসপাতালের জরুরী বিভাগসহ প্রতিটি প্রবেশ দ্বারে তালা লাগিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন।

বরিশাল মেট্রোপলিটন কোতোয়ালি মডেল থানার সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার মোঃ আজাদ রহমান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে রাত সাড়ে বারোটার দিকে চিকিৎসকদের সঙ্গে জরুরী সভা করেন। সভায় ইন্টার্ন চিকিৎসকদের দাবির মুখে এএসআই মহিউদ্দিনকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করার ঘোষণা দিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করা হয়েছে। অপরদিকে এ ঘটনার পর রাত দেড়টার দিকে ইন্টার্ন ডক্টরস এ্যাসোসিয়েশনের আহ্বায়ক ডাঃ মোসাদ্দেক হোসেন জানান, হাসপাতালে চিকিৎসকদের নিরাপত্তাসহ অন্যান্য দাবি নিশ্চিতকরণে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা একটি সভার মাধ্যমে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট আহ্বান করেছে। হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ এস.এম সিরাজুল হক জানান, এ ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। পরবর্তীতে তদন্ত প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।