১৬ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আজ থেকে আন্তঃজেলা রুটে নতুন বাসভাড়া কার্যকর

আজ থেকে আন্তঃজেলা রুটে নতুন বাসভাড়া কার্যকর

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আজ থেকে কমছে দূরপাল্লার বাস ভাড়া। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহানগরী বাদে সারা দেশে বাস ভাড়া কিলোমিটার প্রতি ৩ পয়সা কমানোর ঘোষণা দেয় সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়। এই হিসেবে প্রতি কিলোমিটারে এখন থেকে এক টাকা ৪৫ পয়সার স্থলে এক টাকা ৪২ পয়সা ভাড়া হবে। যদিও ১৫ মে থেকে বাসভাড়া কার্যকর হওয়ার কথা ছিল। পরিবহন মালিকদের চাপের মুখে এক পর্যায়ে পিছু হটে সরকার। এদিকে ভাড়া কার্যকর করতে রাজধানীতে তিনটি মনিটরিং টিম গঠন করেছে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি বিআরটিএ। তবে নামমাত্র তেলের দাম ও বাস ভাড়া কমানোর বিরোধীতা করেছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও পরিবহন সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংগঠন। তারা আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে তেলের দাম লিটার প্রতি আরো অন্তত ২০ টাকা কমানোর দাবি জানিয়েছেন।

সর্বশেষ ২০১৩ সালে আন্তঃজেলা রুটে বাস ভাড়া বাড়ানো হয়। তখন ভাড়া নির্ধারণ করা হয় কিলোমিটারপ্রতি এক টাকা ৪৫ পয়সা। এর আগে ২০১২ সালের ১ জানুয়ারি দূরপাল্লার বাসের ভাড়া প্রতি কিলোমিটারে ১৫ পয়সা করে বাড়িয়ে এক টাকা ৩৫ পয়সা করা হয়। ২০০৮ ও ২০০৯ সালে জ্বালানি তেলের দাম কমানোর পর বাসের ভাড়া কামানো হলেও যাত্রী পর্যায়ে তা বাস্তবায়ন না হওয়ার অভিযোগ যাত্রী অধিকার নিয়ে কাজ করা বিভিন্ন সংগঠনের।

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা যানবাহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষ (ডিটিসিএ)-এর আওতায় সাত জেলায় পরিবহনের ভাড়া কমবে না। এসব জেলা সমূহের মধ্যে রয়েছে, ঢাকা, গাজীপুর, নারায়নগজ্ঞ, কুমিল্লা, মুন্সিগঞ্জ, গাজীপুর, ও নরসিংদী। চট্টগ্রামেও বাস ভাড়া কমবে না। মন্ত্রণালয় সূত্র বলছে, এসব জেলায় সিএনজি চালিত গ্যাসে গাড়ি চলায় ভাড়া কমবে না। সিএনজি চালিত পরিবহনের জন্য পৃথক ভাড়া নির্ধারণ করার কথা জানিয়েছেন তারা।

নতুন বাস ভাড়া কার্যকর প্রসঙ্গে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ জনকণ্ঠ’কে বলেন, প্রজ্ঞাপনে পরিবহন মালিকদের প্রস্তাবের প্রতিফলন হয়নি। মন্ত্রণালয় কোন রকম বৈঠক ছাড়াই প্রতি কিলোমিটারে তিন পয়সা ভাড়া কমানোর ঘোষণা দিয়েছে। এমন বাস্তবতায় আমাদের মেনে নেয়া ছাড়া কোন উপায় নেই।

বাস ভাড়া কার্যকর বিষয়ে জানতে চাইলে বিআরটিএ সচিব শওকত আলী জনকণ্ঠ’কে বলেন, কেউ যেন বাড়তি ভাড়া যাত্রীদের থেকে আদায করতে না পারে তা নিশ্চিত করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। তিনি বলেন, ভাড়া কার্যকর করতে রাজধানীতে তিনটি মনিটরিং টিম গঠন করা হয়েছে। শুক্রবার সকাল থেকে সায়েদাবাদ, মহাখালী ও গাবতলী টার্মিনালে তারা দায়িত্ব পালন করবেন। কেউ বাড়তি ভাড়া নিয়ে সঙ্গে সঙ্গে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্ত্রণালয়ের ঘোষণা অনুযায়ি ১৫ মে থেকে বাসভাড়া কার্যকর হওয়ার কথা ছিল। পরিবহন মালিক সমিতির অনুরোধে ৫দিন সময় বৃদ্ধি করে সরকার। এই হিসেবে আজ ২০ মে থেকে ভাড়া কার্যকর হতে যাচ্ছে। এ প্রসঙ্গে সড়ক পরিবহন মন্ত্রী ওবাযদুল কাদের আগেই থেকে বাস মালিকদের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন। তিনি বলেছেন, কেউ যাত্রীদের থেকে বাড়তি ভাড়া আদায় করলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

গত ২৫ এপ্রিল মধ্যরাত থেকে অকটেন ও পেট্রোলের দাম লিটার প্রতি ১০ টাকা এবং কেরোসিন ও ডিজেলের দাম তিন টাকা কমিয়েছে সরকার। তেলের দামের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে এর আগে বাস সহ অন্যান্য গণপরিবহনের ভাড়া বাড়ানো হয়েছিল। সে যুক্তি দেখিয়ে এবার ভাড়া কমানোরও দাবি ওঠে যাত্রী অধিকার আন্দোলনে যুক্তদের। অবশ্য যাত্রী অধিকার নিয়ে কাজ করে এমন একটি সংগঠন ‘যাত্রী কল্যাণ সমিতি’র মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরী বলেন, দুই বা তিন পয়সা ভাড়া কমিয়ে যাত্রীর কোনো লাভ হবে না। এক্ষেত্রে দূর পাল্লায় তিন থেকে চার টাকা ভাড়া কমতে পারে। তবে জ্বালানি তেলের দাম বাড়লে এর কয়েকগুন ভাড়া বৃদ্ধি হতো। এই ধরনের বৈঠক একটি আইওয়াস বলেও মনে করেন তিনি।

জ্বালানি তেলের দাম কমার পর দূরপাল্লায় বাস ভাড়া কমানোর বিষয়টি আলোচনায় আসে। বিভিন্ন মহলে দাবির প্রেক্ষিতে সড়ক পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরও ঘোষণা দিয়েছিলেন, তেলের দাম কমার পর ভাড়া কমানো হবে। লিটারপ্রতি এক টাকা জ্বালানি তেলের দাম কমলে কিলোমিটারপ্রতি এক পয়সা ভাড়া কমানোর ঘোষণা দিয়েছিলেন মন্ত্রী।

তেলের দাম কমার পর ব্যয় বিশ্লেষন কমিটির সঙ্গে আলোচনা করে ভাড়া নির্ধারণের প্রস্তাব তৈরী করতে বিআরটিএকে নির্দেশ দেয় সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়। এরি ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ) পরিবহন কর্তৃপক্ষ সহ ব্যয় বিশ্লেষণ কমিটির সঙ্গে বৈঠক করে। বৈঠকে পবিরহন নেতারা প্রতি কিলোমিটারে দুই পয়সা ভাড়া কমানোর দাবি জানান। কিন্তু বিআরটিএ পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তিন পয়সা কমানোর। এর যুক্তি হিসেবে বলা হচ্ছে, তেলের দাম যত বাড়ে প্রতি কিলোমিটারে এক পয়সা হারে ভাড়া বাড়ে। বৈঠক শেষে বিআরটিএ পক্ষ থেকে আন্তঃজেলায় প্রতি কিলোমিটারে তিন পয়সা ভাড়া কমানোর প্রস্তাব পাঠানো হয় সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ে।

প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান ॥ জ্বালানি তেলের দাম কমার প্রেক্ষিতে দূরপাল্লার বাসভাড়া কিলোমিটারপ্রতি ৩ পয়সা কমানোর ঘোষণা প্রত্যাখ্যান করেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)। সিপিবি’র সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ এক বিবৃতিতে বলেছেন, যে ‘নামমাত্র’ হারে বাসভাড়া কমানোর প্রস্তাব বিআরটিএ করেছে, তা হাস্যকর, অগ্রহণযোগ্য এবং বাস্তবায়ন-অযোগ্য। এটা জনগণের সাথে নির্মম তামাশা ছাড়া আর কিছুই নয়।