১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আসন্ন বাজেটে উচ্চ শিক্ষাখাতে বরাদ্দ বাড়ানোর আহবান

অনলাইন ডেস্ক ॥ ‘উচ্চশিক্ষা বাজেট’ বিষয়ক এক অনুষ্ঠানে বক্তারা আসন্ন বাজেটে উচ্চ শিক্ষাখাতে বরাদ্দ বাড়ানোর আহবান জানিয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সেন্টার অন বাজেট এন্ড পলিসির উদ্যোগে এক আলোচনা সভায় বক্তারা এ আহবান জানান।

তারা বলেন,উচ্চ শিক্ষা বিশেষত বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের দীর্ঘমেয়াদী উন্নয়নের কৌশলপত্র বা ধারণাপত্র প্রণয়ন, বিশ্ববিদ্যালয়ে সময়োপযোগী পাঠ্যসূচি তৈরি এবং গবেষণা খাতে বরাদ্দ বৃদ্ধি প্রয়োজন।

দক্ষিণ এশীয় উন্নয়নশীল দেশগুলোর তুলনায় বাংলাদেশের শিক্ষা খাতে বরাদ্দের দিক দিয়ে এগিয়ে নয় বলে উল্লেখ করে আলোচনায় বক্তারা বলেন,প্রাক বাজেট আলোচনার মুখ্য বিষয়বস্তু হিসেবে উচ্চশিক্ষা খাতের বাজেট বিশ্লেষণ, পর্যবেক্ষণ ও উন্নয়নে বেশ কিছু প্রাসঙ্গিক প্রস্তাবনা ও প্রস্তাব উপস্থাপন করা হয়।

একইসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট ডেভেলপমেন্ট, পাঠাগারের কলেবর বৃদ্ধি, ইন্টারনেট সুবিধার কার্যকর সম্প্রসারণসহ সকল পর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের মান নিয়ন্ত্রণ ও ব্যবস্থাপনার জন্য সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এবং বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সাথে সমন্বয়ভিত্তিক সহায়তামূলক সম্পর্ক স্থাপন এবং এক্ষত্রে বাজেটের সুষম বণ্টন অব্যাহত রাখা প্রয়োজন বলেও বক্তারা উল্লেখ করেন।

তারা জানান, ২০১৪ সালে বাংলাদেশ তার জিডিপির মাত্র ২ দশমিক ২ শতাংশ সার্বিক শিক্ষা খাতে বরাদ্দ দিয়েছে, যেখানে প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতে এটি ছিল ৩ দশমিক ২ শতাংশ, শ্রীলঙ্কাতে ৬ দশমিক ৩ শতাংশ এবং মালদ্বীপে ৮ শতাংশ ছিল।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. আবু ইউসুফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এতে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ ও সেন্টার অন বাজেট এন্ড পলিসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. কামাল উদ্দীন, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ এবং মহাসচিব অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল প্রমুখ।