২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু প্রভাব ॥ প্রস্তুত জেলার তিনশতাধিক আশ্রয়কেন্দ্র

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটুয়াখালী ॥ পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় রোয়ানুর প্রভাবে আজ শুক্রবার সকাল থেকে পটুয়াখালীসহ উপকূলীয় এলাকায় বৃষ্টিপাত অব্যাহত রয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সাগর উত্তাল রয়েছে। প্রায় পাঁচ শতাধিক মাছ ধরা ট্রলার আশ্রয় নিয়েছে মৎস্য বন্দর আলীপুর ও মহিপুরে। ঘূর্ণিঝড়টি পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ১০৫৫ কি.মি. দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছে বলে জানিয়েছে কলাপাড়া রার্ডার স্টেশন। জেলা প্রশাসন ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টায় দুর্যোগ প্রস্তুতি কমিটির জরুরী বৈঠক করেছে।

কুয়াকাটা-আলীপুর বন্দর মৎস্য ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সভাপতি আনসার মোল্লা জানান, সাগর উত্তাল থাকায় প্রায় পাঁচ শতাধিক ট্রলার আলীপুর-মহিপুরে আশ্রয় নিয়েছে। এখন পর্যন্ত কোন দুর্ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি বলে নিশ্চিত করেন তিনি।

কলাপাড়া রাডার স্টেশনের ইনচার্জ প্রকৌশলী প্রদীপ কুমার জানান, ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ১০৪৫ কি.মি. দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছে। পায়রা সমুদ্র বন্দরকে ৪ নম্বর এবং নদী বন্দরগুলোকে ২ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। গতকাল থেকে আজ বেলা ১২টা পর্যন্ত ১০৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। রাতেও বৃষ্টিপাতের সম্ভবনা রয়েছে।

জেলা দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রান অধিদপ্তরের সুত্র জানায়২১০টি সাইক্লোন সেল্টারসহ ৩৩১টি আশ্রয়ন কেন্দ্রকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে।