২১ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিপাকে মুম্বাইয়ের ফ্লেমিঙ্গো

শহরের মধ্যঞ্চলে ফ্লেমিঙ্গো পাখির বসবাস খুব বেশি শহরে দেখতে পাওয়া যায় না। ভারতের মুম্বাই শহর এ ক্ষেত্রে অনেকটা ব্যতিক্রম বলতে হবে। এখানে এলে দেখা মেলে প্রচুর ফ্লেমিঙ্গোর। সমস্যা হলো এই শহরে একটি ব্রিজ তৈরির পরিকল্পনা চলেছে। ব্রিজটি যাবে ঠিক এই ফ্লেমিঙ্গোদের আবাসের ওপর দিয়েই।

বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন পরিবেশবাদীরা।

মুম্বাইতে ফ্লেমিঙ্গো ঘাঁটি গেড়েছে ২০ বছর ধরে। এমনকি মুম্বাইয়ের বাসিন্দারাও এ বিষয়ে ওয়াকিবহাল নয় যে, একমাত্র নাইরোবি আর মায়ামি ছাড়া আর কোন শহরে ফ্লেমিঙ্গোর আনাগোনা দেখতে পাওয়া যায় না।

মুম্বাই ট্রান্স হার্বার লিংক এখন মুম্বাই বন্দরের ব্রিজ তৈরির পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। ফ্লেমিঙ্গোরা যেখানে খাবার খোঁজে ও বাসা বাঁধে পরিকল্পিত এই ব্রিজ যাবে ঠিক সেই এলাকার ওপর দিয়ে। ফ্লেমিঙ্গো মূলত পরিযায়ী পাখি। মে থেকে অক্টোবর পর্যন্ত এই পাখি থাকে রাজস্থানের থর মরুভূমির কাছাকাছি জলাশয়ে। বর্ষায় সময় জলাশয়ে পানি থাকে। শীতকালে পানি শুকিয়ে গেলে ফ্লেমিঙ্গো দলবেধে চলে আসে মুম্বাইয়ের সেউরি বে’তে। জায়গাটির অবস্থান মহারাষ্ট্রের নিকটবর্তী মুম্বাইয়ের দক্ষিণ অংশে। এখানে বিভিন্ন পাখির জন্য অভয়ারণ্য তৈরি করা হয়েছে। মুম্বাই ট্রান্স হার্বার লিংক সেউরি এবং নভো সেবার মধ্যে ২২ কিলোমিটার যে ব্রিজটি তৈরির পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে সেটি বাস্তবায়ন হলে ফ্লেমিঙ্গোর আনাগোনা বাধাগ্রস্ত হতে পারে। এ বছর অক্টোবরে ব্রিজ তৈরির কাজ শুরু হওয়ার কথা। -মুম্বাই মিরর