২০ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

এবার কি পারবেন সেরেনা?

এবার কি পারবেন সেরেনা?

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গত মৌসুমে চার গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্টের প্রথম তিনটিতেই চ্যাম্পিয়ন সেরেনা উইলিয়ামস। কিন্তু এরপরেই দীর্ঘ ৯ মাসের শিরোপা-খরায় ভোগেন তিনি। তবে ফ্রেঞ্চ ওপেনের ঠিক আগের সপ্তাহেই রোম মাস্টার্সের শিরোপা জিতেন সেরেনা উইলিয়ামস। যে কারণে রোঁলা গ্যাঁরোয় এবারও ফেবারিট হিসেবেই কোর্টে নামবেন আমেরিকান টেনিসের এই জীবন্ত কিংবদন্তি। কিন্তু তারপরও সাম্প্রতিক সময়ের নিষ্প্রভতার কারণে প্রশ্ন উঠছে এবার কি শিরোপা ধরে রাখতে পারবেন তিনি নাকি নতুন কোন রানী পাচ্ছে ফরাসী ওপেন?

দেড় যুগ আগে টেনিস কোর্টে রাজত্ব শুরু করেছিলেন সেরেনা উইলিয়ামস। এখন পর্যন্ত ২১টি গ্র্যান্ডসøাম জিতে নিজেকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়। কিন্তু ফ্রেঞ্চ ওপেনে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন মাত্র তিনবার। তাও আবার গত তিন মৌসুমে দুইবার ফরাসী ওপেনে শিরোপা জয়ের হাসি হেসেছেন তিনি। রোম মাস্টার্সে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরও সেরেনা প্রতিপক্ষকে হুমকি দিয়ে দিয়েছেন যে, ‘এটা আমার সব সময়ই প্রিয় কোর্ট। গ্রাসের কোর্টের চেয়েও এটাকে আমি বেশি ভালবাসি।’ চলতি মৌসুমে চারটি টুর্নামেন্ট খেলেছেন সেরেনা। যার তিনটিতেই ফাইনাল খেলেন তিনি। মৌসুমের প্রথম গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ফাইনালে জার্মানির এ্যাঞ্জেলিক কারবারের কাছে হার মানেন তিনি। এরপর ইন্ডিয়ান ওয়েলসে ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কার কাছে হেরে লজ্জাজনকভাবে বিদায় নেন সেরেনা উইলিয়ামস। তবে গত সপ্তাহে রোম মাস্টার্সের ফাইনালে স্বদেশী মেডিসন কেইসকে হারিয়ে স্বরূপে ফেরার ইঙ্গিত দেন ৩৪ বছর বয়সী সেরেনা উইলিয়ামস।

তবে ফ্রেঞ্চ ওপেনের ড্র অনুযায়ী আমেরিকান তারকা তৃতীয় রাউন্ডেই মুখোমুখি হতে পারেন ফ্রান্সেস্কা শিয়াভোনের। ইতালিয়ান তারকা শিয়াভোনি ২০১০ সালে এই টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতেছিলেন। শুধু তাই নয়, কোয়ার্টার ফাইনালে ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কারও মুখোমুখি হতে পারেন সেরেনা উইলিয়ামস। বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক নাম্বার ওয়ান ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা।

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের দুইবারের চ্যাম্পিয়ন। কিন্তু টেনিস কোর্টে গত মৌসুমটা একেবারেই বাজেভাবে কাটে তার। তবে চলতি মৌসুমেই স্বরূপে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছেন বেলারুশ সুন্দরী। ইন্ডিয়ান ওয়েলস ও মিয়ামি ওপেনে ব্যাক টু ব্যাক শিরোপা জিতেন তিনি। তাই ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপা জিততে এবার সেরেনার বড় বাধা হতে পারেন কেবল আজারেঙ্কাই। কেননা ডোপ টেস্টে পজিটিভ হওয়ার কারণে মারিয়া শারাপোভা এবার নেই। তাছাড়া সিমোনা হ্যালেপ, এ্যাগ্নিয়েস্কা রাদওয়ানস্কারাও নিজেদের খুঁজছেন হারিয়ে।