২২ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নাদাল-জোকোভিচের লড়াই সেমিতেই?

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দীর্ঘ এক বছরের অপেক্ষার পর রবিবার থেকে শুরু হচ্ছে ফ্রেঞ্চ ওপেন। মৌসুমের দ্বিতীয় গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্টের আগে শনিবার হয়ে গেল ড্র। আর এই ড্র অনুযায়ী এবার সেমিফাইনালেই নোভাক জোকোভিচ এবং রাফায়েল নাদালের লড়াই দেখার সম্ভাবনা রয়েছে। আর সবকিছু সঠিকভাবে এগুলে অন্য সেমিফাইনালে টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন্স স্টানিসøাস ওয়ারিঙ্কার মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বৃটিশ তারকা এ্যান্ডি মারের।

সুদীর্ঘ ক্যারিয়ারে ১১টি গ্র্যান্ডসøাম জয়ের স্বাদ পেয়েছেন নোভাক জোকোভিচ। গত মৌসুমটাও দারুণ কেটেছে তার। চার গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্টের তিনটিতেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন তিনি। কিন্তু এখন পর্যন্ত ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপাটাই ছোঁয়া হলো না তার। শেষ চার মৌসুমের তিনটিতেই ফাইনালে উঠেছেন তিনি। কিন্তু শিরোপা জয়ের লড়াইয়েই হেরে যান এই সার্বিয়ান। এবার কি ফ্রেঞ্চ ওপেনে চ্যাম্পিয়ন হয়ে ক্যারিয়ার গ্র্যান্ডসøাম জয়ের বৃত্ত পূরণ করতে পারবেন জোকোভিচ? সেক্ষেত্রে শেষ চারে তার বড় বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারেন নাদাল। যার সাম্প্রতিক সময়টা একেবারেই বাজে যাচ্ছে। শুধু তাই নয়, গত মৌসুমে এই ফ্রেঞ্চ ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালেও জোকোভিচের কাছে হেরে গিয়েছিলেন নাদাল। এবার তাই সেমিতে উঠে জোকোভিচকে হারিয়ে প্রতিশোধ নেয়ার দারুণ সুযোগ পাচ্ছেন এই স্প্যানিয়ার্ড। সুদীর্ঘ ক্যারিয়ারে ১৪টি গ্র্যান্ডসøাম জয়ের স্বাদ পেয়েছেন রাফায়েল নাদাল। যার ৯টিই আবার ফ্রেঞ্চ ওপেনে। কিন্তু শেষটি ২০১৪ সালে। এরপর আর কোন মেজর শিরোপাই জিততে পারেননি তিনি। যে কারণে এবার রোঁলা গ্যাঁরোর শিরোপা পুনরুদ্ধার করতে পারলে নতুন মাইলফলক স্পর্শ করবেন ২৯ বছর বয়সী এই স্প্যানিশ টেনিস তারকা। আর জোকোভিচ চ্যাম্পিয়ন হলে ক্যারিয়ার গ্র্যান্ডসøাম জয়ের মাইলফলক স্পর্শ করবেন।

তাই এই দুই তারকার দিকেই এবার আলাদা করে দৃষ্টি রাখবেন টেনিসপ্রেমীরা। তবে নাদাল-জোকোভিচ ছাড়াও ক্লে-কোর্টের এই মেজর টুর্নামেন্টে ফেবারিট হিসেবে কোর্টে নামবেন স্টানিসøাস ওয়ারিঙ্কা। কেননা গত মৌসুমে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা নোভাক জোকোভিচকে হারিয়েই যে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেন তিনি। সুইজারল্যান্ডের এই টেনিস তারকা সঠিকভাবে এগুলে ফ্রেঞ্চ ওপেনের সেমিফাইনালে এ্যান্ডি মারের মুখোমুখি হবেন। সম্প্রতি রোম মাস্টার্সের ফাইনালে নোভাক জোকোভিচকে হারিয়ে ক্লে-কোর্টের শিরোপা নিজের শোকেসে তোলেন মারে। যে কারণে ফ্রেঞ্চ ওপেনেও ফেবারিটের তকমাটা গায়ে মেখে কোর্টে নামবেন দুটি গ্র্যান্ডসøাম জয়ের মালিক।