২২ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভোলায় ২ হাজার ঘর বাড়ি বিধ্বস্ত ॥ নিখোঁজ ৪

ভোলায় ২ হাজার ঘর বাড়ি বিধ্বস্ত ॥  নিখোঁজ ৪

নিজম্ব সংবাদদাতা, ভোলা ॥ ভোলার তজুমদ্দিনের উপর দিয়ে গতকাল শুক্রবার রাতে স্মরন কালের ভয়াবহ ঘুর্নি ঝড় বয়ে গেছে। এতে উপজেলার শশীগঞ্জ বাজার, চাঁদপুর ইউনিয়ন লন্ডভন্ড হয়ে গেছে। উপজেলার প্রধান শশীগঞ্জ বাজারের প্রায় ৩ শতাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভেঙ্গে চুরমার হয়ে গেছে। প্রায় ২ হাজার ঘর বাড়ি ভেঙ্গে ছিন্ন বিছিন্ন হয়ে গেছে।

বাজারের এমন কোন দোকান নেই যে বিধ্বস্ত হয়নি। তজুমদ্দিন বাজার এখন এক ধ্বসযঞ্জ বিরান ভূমি। এতে ব্যবসায়ীদের কয়েক কোটি টাকার সম্পদ নষ্ট হয়েছে। বিধ্ব স্ত হয়েছে মাদ্রসা মসজিদসহ বহু প্রতিষ্ঠান। বিধ্বস্ত পরিবাগুলোর এখন মাথা গোজার ঠাই নেই। অনেকেই এখন সর্বস্ব হারিয়ে ফের ঘুর্ণিঝড় রোয়ানের হাত থেকে জীবন বাচাতে আশ্রয় কেন্দ্রে ছুটে যাচ্ছে।

তজুমদ্দিনে গত রাতে ঘর চাপা পড়ে নিহত শিশু আক্রাম ও রেখাকে ইতো মধ্যেই দাফন করা হয়েছে। গুরুতরদের তজুমদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ব্যাপক হারে গাছ পালা উপরে পড়ায় এখন আহত অনেকেই চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিতে পারছে না।

অপর দিকে মেঘনার পানির চাপ বৃদ্ধি পাওয়া তজুমদ্দিনের চৌমোহনী ও বাগের খাল এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়ী বাঁধ ভেঙ্গে গেছে। এতে করে ২টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

অপর দিকে ভোলার ইলিশা ফেরিঘাট ও বিশ্ব রোড এলাকায় ২টি বালি ভর্তি কার্গো জাহাজ ডুবে গেছে। এসময় কার্গো জাহাজের ৪ ষ্টাফ নিখোজ হওেয়ছে বলে জানিয়েছেন ভোলা থানার ওসি খায়রুল কবির।

এদিকে ভোলা জেলা প্রশাসক মোহাং সেলিম উদ্দিন জানান, ঝড়ে নিহত প্রতি পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে দেয়া হবে। এছাড়াও জেলায় ক্ষতিগ্রস্তদের পৌনে ৩ লাখ টাকাও ৫৫ মেট্রিক টন চাল বরাদ্ধ করা হয়েছে।