১৭ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আজ শুরু ফ্রেঞ্চ ওপেন

আজ শুরু ফ্রেঞ্চ ওপেন
  • সেরেনা-জোকোভিচেই দৃষ্টি সবার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দীর্ঘ এক বছরের অপেক্ষার পর আজ থেকে শুরু হচ্ছে ফ্রেঞ্চ ওপেন। ফ্রেঞ্চ ওপেনের ১১৫তম আসরে কোর্টে নামতে মরিয়া সব তারকারাই। তবে প্রায় দেড় যুগ পর এবারই প্রথমবারের মতো রজার ফেদেরারকে মিস করবে মৌসুমের দ্বিতীয় এই মেজর টুর্নামেন্ট। তাছাড়া ড্রাগ টেস্টে পজিটিভ হওয়ার কারণে রোঁলা গ্যাঁরোয় খেলতে পারছেন না রাশিয়ান টেনিস তারকা মারিয়া শারাপোভাও। তবে সেরেনা উইলিয়াম, ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা, সিমোনা হ্যালেপ কিংবা এ্যাগ্নিয়েস্কা রাদওয়ানস্কা প্রস্তুত নিজেদের সেরাটা দিয়ে টুর্নামেন্টে ঔজ্জ্বল্য ছড়াতে। পুরুষ এককে সুইস কিংবদন্তি না থাকলেও জমজমাট লড়াই উপহার দিতে প্রস্তুত টুর্নামেন্টের শীর্ষ বাছাই নোভাক জোকোভিচ, স্প্যানিশ টেনিস তারকা রাফায়েল নাদাল কিংবা বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ফেড এক্সপ্রেসেরই স্বদেশী স্টানিসøাস ওয়ারিঙ্কা।

ফরাসী ওপেনের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন সেরেনা উইলিয়ামস। আমেরিকান টেনিস কিংবদন্তিকে নিয়ে নতুন করে বলার কিছুই নেই। দেড় যুগের ক্যারিয়ারে অসাধারণ সব পারফরমেন্স উপহার দিয়ে নিজেকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়। গত মৌসুমেও দ্যূতি ছড়িয়েছেন তিনি। চার গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্টের তিনটিতে চ্যাম্পিয়ন হয়ে সব প্রতিপক্ষকেই জানিয়ে দেন আসলে বয়সের ফ্রেমে নিজেকে বেঁধে রাখতে নারাজ তিনি। কিন্তু প্রথম তিন মেজর টুর্নামেন্টের শিরোপা জয়ী সেরেনা উইলিয়ামস ইউএস ওপেনেই থেমে যান। আর সেই ইউএস ওপেনে হারের পর থেকেই আর কোন শিরোপা জিততে পারেননি আমেরিকান টেনিসের এই জীবন্ত কিংবদন্তি। চোট আর ফর্মহীনতার কারণে দীর্ঘ ৯ মাস সেরেনা খুঁজে ফিরেছেন শুধুই নিজেকে। এই সময়ে টেনিসবোদ্ধাদের অনেকেই মনে করেন সেরেনা কি তাহলে ফুরিয়েই গেছেন! তবে ফ্রেঞ্চ ওপেন শুরুর মাত্র এক সপ্তাহ আগেই স্বরূপে ফিরেন তিনি। রোম মাস্টার্সে চ্যাম্পিয়ন হয়ে ফেবারিট হিসেবেই রোঁলা গ্যাঁরোয় শিরোপা ধরে রাখার মিশনে নামবেন তিনি।

ফ্রেঞ্চ ওপেনে চ্যাম্পিয়ন হতে পারলে নতুন এক মাইলফলকও স্পর্শ করবেন সেরেনা উইলিয়ামস। টেনিসের উন্মুক্ত যুগে ২২ গ্র্যান্ডসøাম জয়ী স্টেফি গ্রাফের রেকর্ডে ভাগ বসাবেন তিনি। গত ৯ মাসে মাত্র একটি শিরোপা জিতেছেন সেরেনা। যা ভক্তদের অনেককেই হতাশ করে। সেইসঙ্গে প্রশ্নও ছুড়ে দেয় এবার কি তাহলে পারবেন সেরেনা? গত মৌসুমের ইউএস ওপেনের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নেন তিনি। এই মৌসুমের অষ্ট্রেলিয়ান ওপেনের ফাইনালে উঠেও ব্যর্থ হন মেজর এই গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট জিততে। এবার কি তাহলে চাপের মধ্যে থাকবেন সেরেনা? এ প্রসঙ্গে ২১টি গ্র্যান্ডসøাম জয়ের মালিক বলেন, ‘এটা সম্পূর্ণরূপেই ভিন্ন সময়। আমি এবার অনেক কিছুই জিততে চাই এমনকি আমার প্রত্যাশার চেয়েও বেশি।’ মেলডোনিয়াম নামক নিষিদ্ধ ড্রাগ সেবনের কারণে এবার রোঁলা গ্যাঁরোয় থাকছেন না সেরেনার বড় বাধা মারিয়া শারাপোভা। তবে রুশ সুন্দরীর অনুপস্থিতিতে ফ্রেঞ্চ ওপেনে সেরেনার হুমকি হয়ে দাঁড়াতে পারেন জার্মানির এ্যাঞ্জেলিক কারবার। বছরের প্রথম গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে সেরেনাকে হারিয়েই ক্যারিয়ারের প্রথম মেজর শিরোপা জয়ের স্বাদ পেয়েছিলেন তিনি। কারবার ছাড়াও ফেবারিট হিসেবে কোর্টে নামবেন দুইবারের উইম্বল্ডন চ্যাম্পিয়ন পেত্রা কেভিতোভা, ২০১৪ সালের ফাইনালিস্ট রোমানিয়ার সিমোনা হ্যালেপ, পোল্যান্ডের এ্যাগ্নিয়েস্কা রাদওয়ানস্কা এবং ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কার মতো তারকারা।

আর পুরুষ এককে এবার ফ্রেঞ্চ ওপেন জিতে ক্যারিয়ার গ্র্যান্ডসøাম পূর্ণ করতে মরিয়া নোভাক জোকোভিচ। গত মৌসুমটা দুর্দান্ত কেটেছে তার। চার গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্টের শুধু ফ্রেঞ্চ ওপেনেই শিরোপা জিততে ব্যর্থ হন তিনি। সুইস টেনিস তারকা স্টানিসøাস ওয়ারিঙ্কার কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয় তার। তবে এবার আর ভুল করতে নারাজ তিনি। যদিওবা সার্বিয়ান তারকা সেমিফাইনালে প্রতিপক্ষ হিসেবে পাচ্ছেন স্প্যানিশ টেনিস তারকা রাফায়েল নাদালকে। ক্লে কোর্টের রাজা হিসেবে বিবেচিত নাদাল। কিন্তু গত দুটি মৌসুম একেবারেই বাজেভাবে কাটে তার। সাম্প্রতিক সময়ে কোর্টে ফেরার সব ধরনের চেষ্টাই করছেন তিনি। যে কারণে রোঁলা গ্যাঁরোতেই আবারও স্বরূপে ফেরার দারুণ সুযোগ পাচ্ছেন এই স্প্যানিয়ার্ড। টুর্নামেন্টের শীর্ষ বাছাই নোভাক জোকোভিচ এবং ক্লে কোর্টের সম্রাট রাফায়েল নাদাল ছাড়াও ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপার দৌড়ে এগিয়ে থেকে কোর্টে নামবেন যারা তারা হলেন, বৃটেনের এ্যান্ডি মারে, ফ্রান্সের জো উইলফ্রেইড সোঙ্গা, জাপানের কেই নিশিকোরি, ডেভিড ফেরার, টমাস বার্দিচ এবং বর্তমান চ্যাম্পিয়ন স্টানিসøাস ওয়ারিঙ্কা।