২২ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শেষ দিনে আজ শেষ চারের ফয়সালা

  • আইপিএল

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের (আইপিএল) ইতিহাসে আর কখনও এমন পরিস্থিতির তৈরি হয়েছে কিনা সন্দেহ। কোন্ চার দল শেষ চারে (কোয়ালিফাই রাউন্ড) যাচ্ছে, সেটি নিশ্চিত হতে আজ লীগ পর্বের শেষ দিনের দুটি ম্যাচের ফলের দিকে তাকিয়ে থাকতে হচ্ছে! প্রতিটি দল ১৩ খেলা শেষ করায় লীগ পর্বে বাকি আর একটি করে ম্যাচ। সমান ৮ জয়ে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ও গুজরাট লায়ন্স। ৭টি করে জয়ে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে পরের চারটি স্থানে (দ্বিতীয় থেকে ষষ্ঠ) যথাক্রমে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু, কলকাতা নাইট রাইডার্স, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ও দিল্লী ডেয়ারডেভিলস! শনিবার এ রিপোর্ট লেখার সময় লড়াইয়ের অপেক্ষায় ছিল দ্বিতীয় ও পঞ্চম দল গুজরাট-মুম্বাই। তাতে মুম্বাই জিতে থাকলে তাদের পয়েন্টও ১৬ হয়ে গেছে!

আজ হায়দরাবাদকে হারাতে পারলে কলকাতার পয়েন্টও হবে ১৬, রাতে দিল্লী-ব্যাঙ্গালুরু ম্যাচে যারা জিতবে তাদেরও পয়েন্ট হবে ১৬! অর্থাৎ লীগ পর্বের সবগুলো ম্যাচ শেষেও শেষ চারের নিয়ামক হয়ে উঠতে পারে রান রেট!! অবশ্য হায়দরাবাদ আর গুজরাট জিতলে কোন সমীকরণ ছাড়াই শীর্ষে থেকে কোয়ালিফাই করবে। সেক্ষেত্রে শেষ চারে বাকি দুটি পজিশনের জন্য লড়াইটা জমে উঠবে ব্যাঙ্গালুরু, কলকাতা, মুম্বাই ও দিল্লীর মধ্যে। শেষ চারে কোয়ালিফাই করতে হলে প্রতিটি দলকেই প্রথমে জিততে হবে, তার পর রান রেটের সমীকরণ! এমন ফাঁড়ার মধ্যে পড়ে গেছে বাংলাদেশী তারকা সাকিব আল হাসানের কলকাতাও। সবচেয়ে সুবিধাজনক অবস্থায় থাকা মুস্তাফিজুরদের হারানো ছাড়া গত্যন্তর নেই সাকিবদের! দুই টাইগার-হিরোর দ্বৈরথে কে হাসবে শেষ হাসি? বাংলাদেশী ভক্তরা সেটি দেখতে মুখিয়ে।

ব্যক্তিগত লড়াইয়ে অবশ্যই এগিয়ে মুস্তাফিজ। দুরন্ত বোলিং করে ইতোমধ্যে যিনি আইপিএল ভক্তদের হৃদয় জয় করেছেন। হায়দরাবাদকে শীর্ষ সারিতে তুলতে রেখেছেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। শিকার করেছেন তৃতীয় সর্বোচ্চ ১৫ উইকেট। দর্শক জরিপে ‘ইমার্জিং প্লেয়ার অব দ্য সিজনে’র দৌড়ে ঢের এগিয়ে বাংলাদেশী কাটার মাস্টার। অধিনায়ক গৌতম গাম্ভীরের দুরন্ত ব্যাটিংয়ে (৬০ বলে অপরাজিত ৯০) লীগ পর্বের প্রথম দেখায় ৮ উইকেটের বড় জয় পেয়েছিল কলকাতা। সেদিন সাকিব ছিলেন উইকেটশূন্য, মুস্তাফিজ বোল্ড করেছিলেন আন্দ্রে রাসেলকে। এবারের আইপিএলে সাকিবের সময়টা ঠিক সাকিবের মতো যাচ্ছে না। দলের সবগুলো ম্যাচে একাদশে সুযোগও হয়নি তার। ব্যাট হাতে একটি মাত্র হাফ সেঞ্চুরি, বোলিং সাকল্যে মাত্র ৪ উইকেট! যা তার মতো অলরাউন্ডারের নামের পাশে বড় বেমানান। আজ ‘ডু অর ডাই’ ম্যাচটা কলাকাতা খেলবে ঘরের মাঠ ইডেন গার্ডেন্সে।

পয়েন্ট সমান হলেও অপর ম্যাচে এগিয়ে থাকবে ব্যাঙ্গালুরু। অতিদানবীয় ব্যাটিং করছেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি (৪ সেঞ্চুরি ও ৫ হাফ সেঞ্চুরিতে ৮৬৫), তাকে যোগ্য সহায়তা দিচ্ছেন প্রোটিয়া তারকা এবি ডি ভিলিয়ার্স। গুজরাট, কলকাতা ও কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে রানবন্যায় ভাসিয়ে নিজেদের শেষ তিন ম্যাচে জয় তুলে নেয় ব্যাঙ্গালুরু। উঠে আসে শেষ চারের রেসে। লীগ পর্বের প্রথম দেখায় অবশ্য জহির খানের দিল্লীর কাছে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে হেরে গিয়েছিল তারা।