১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঊষা-আজাদের বড় জয় প্রিমিয়ার হকি লীগে

  • প্রথম হারের স্বাদ পেল মেরিনার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ‘গ্রিন ডেল্টা প্রিমিয়ার ডিভিশন হকি লীগে’ অঘটনের শিকার হয়েছে ঢাকা মেরিনার ইয়াংস ক্লাব। তাদের প্রথম হারের ‘তেতো’ স্বাদ দিয়েছে গত লীগের যুগ্ম চ্যাম্পিয়ন দল ঊষা ক্রীড়া চক্র। শনিবার মওলানা ভাসানী জাতীয় হকি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত খেলায় দেশীয় হকির অন্যতম পরাশক্তি ঐতিহ্যবাহী ঊষা একতরফা লড়াইয়ে মেরিনারকে হারায় ৪-১ গোলে। এছাড়া একই ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত দিনের প্রথম ম্যাচে একই ব্যবধানে (৪-১ গোলে) বাংলাদেশ রেলওয়ে স্পোর্টিং ক্লাবকে হারায় আজাদ স্পোর্টিং ক্লাব।

চলতি লীগে এটি ঊষার টানা তৃতীয় জয়। এর আগে তারা ওয়ারী ক্লাবকে ৪-১ এবং বাংলাদেশ রেলওয়েকে ১৩-০ গোলে হারায়। পক্ষান্তরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে এ্যাজাক্স স্পোর্টিং ক্লাবকে ৪-১ গোলে হারিয়ে লীগে শুভসূচনা করেছিল মেরিনার। দলের হারের পর জার্মান কোচ পিটার গেরহার্ড বলেন, ‘ছেলেদের অভিজ্ঞতার অভাব আছে। বারবার বলেও কিছু বিষয় তাদের বোঝানো যাচ্ছে না। তবে আমার বিশ্বাস সামনের ম্যাচগুলোয় তারা ঠিকই ঘুরে দাঁড়াবে।’ ঊষা কোচ মামুন উর রশীদ বলেন, ‘জিতলেও ছেলেদের খেলায় খুব খুশি নই। ওরা আরও ভাল খেলতে পারতো। আরও গোল পেতে পারতো। পাকিস্তানের খেলোয়াড়রা আজই প্রথম খেলেলো, ফলে ওদের খেলায় সমন্বয় ছিল না।’

পাঁচ বিদেশী নিয়ে নামা ঊষা প্রথম থেকেই প্রতিপক্ষের ওপর প্রাধান্য বিস্তার করে খেলে। পক্ষান্তরে দুই বিদেশী নিয়ে নামা মেরিনারের ডিভেন্স লাইন বারবার তছনছ হয়ে যাচ্ছিল। পেনাল্টি কর্নার থেকে ২১ মিনিটে এগিয়ে যায় ঊষা। কৃষ্ণ কুমারের পুশ সারোয়ার স্টপ করার পর লক্ষ্যভেদ করেন আলিম বেলাল (১-০)। পুস্কর ক্ষিসা মিমো গোল করলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে নিয়ে বিরতিতে যায় ঊষা (২-০)। বাঁ প্রান্ত দিয়ে ঢুকে মেরিনারের গোলরক্ষকে পরাস্ত করে নিখুঁত ফ্লিকে গোল করেন জাতীয় দলের এই ফরোয়ার্ড। ৬১ মিনিটে পেনাল্টি কর্নার থেকে আশরাফুল ইসলামের গোলে ব্যবধান কমায় মেরিনার (১-২)। ঊষা তিন মিনিটের ব্যবধানে আরও দুই গোল করে পুরো তিন পয়েন্ট নিশ্চিত করে নেয়। ৬৬ মিনিটে সারোয়ারের পাওয়া হিটে হাসান যুবায়ের নিলয়ের ফ্লিকে ৩-১ এবং ৬৯ মিনিটে স্কোরলাইন ৪-১ করেন মাহাবুব হোসেন।

অপর ম্যাচে রফিকুল ইসলামের গোলে শুরুতে এগিয়ে যায় রেলওয়ে। সজীব হোসেনের (২৭, ৩১ ও ৪৭ মিনিটে, তিনটিই পিসি গোল) হ্যাটট্রিকে ঘুরে দাঁড়ায় আজাদ। ৫৯ মিনিটে নাসির হোসেন ম্যাচের শেষ গোলটি করলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আজাদ।

নির্বাচিত সংবাদ