২০ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জামায়াতী অপপ্রচারের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রে আওয়ামী লীগ নীরব

মাহফুজুর রহমান ॥ যুদ্ধাপরাধী নিজামীর ফাঁসি কার্যকরের আগে ও পরে নিউইয়র্কসহ আমেরিকায় নানা ছদ্মনামে গড়ে উঠা যুদ্ধাপরাধী জামায়াতের সমর্থক সংগঠনগুলো সোচ্চার থাকলেও এর বিরুদ্ধে এবং যুদ্ধাপরাধের বিচারের সমর্থনে তেমন কোন শক্ত কর্মসূচী দেখা যায়নি। এর কারণ হিসেবে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির সাধারণ প্রবাসীরা যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের অকর্মণ্য নেতৃত্বকে দায়ী করেছেন। একই সঙ্গে জাতিসংঘ বাংলাদেশ মিশন, ওয়াশিংটন দূতাবাস, নিউইয়র্ক ও লস এঞ্জেলেস কনস্যুলটের আমলাদের নিরপেক্ষ অবস্থানের কারণে স্টেট ডিপার্টমেন্ট, জাতিসংঘ প্রেস সেন্টার ও নিউইয়র্ক ফরেন প্রেস সেন্টারে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে উপস্থিত থেকে ঢাকা থেকে বিশেষ মিশনে আসা জামায়াত-বিএনপিপন্থী মিডিয়াকর্মীরা বাংলাদেশ সরকারের বিরুদ্ধে নানা কুৎসা রটনা এবং অতিরজ্ঞিত সংবাদ সৃষ্টি করছে। এমন পরিস্থিতিতে ওয়াশিংটন দূতাবাসের ও নিউইয়র্ক কনস্যুলেটে রাজনৈতিক নিয়োগপ্রাপ্ত দু’য়েকজন কর্মকর্তাকে বিচলিত হতে দেখা গেলেও তাদের পক্ষে পরিস্থিতি পরিবর্তন করার কোন চেষ্টা নেই। হাইকোর্টে যুদ্ধাপরাধী নিজামীর ফাঁসির রায়ের রিভিউতে ‘ফাঁসি বহাল’ রাখার পর নিউইয়র্কে জামায়াতপন্থী নানা নামের সংগঠনগুলো দিনরাত নানা কর্মসূচী পালন করেছে। নিউইয়র্ক থেকে জামায়াতী ফেসবুক পেইজ ‘বাঁশের কেল্লা ইউএসএ’ হাসিনা সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপ্রচার শুধু না, যুদ্ধাপরাধের বিচারের বিরুদ্ধে নানা অসত্য তথ্য প্রচার করছে। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধেও কুৎসা রটনা করে যাচ্ছে বাঁশের কেল্লা ইউএসএ পেইজটি। অন্যদিকে বাংলাদেশ থেকে প্রচারিত দু’একটি বিএনপিপন্থী স্যাটেলাইট চ্যানেল নিয়মিত যুদ্ধাপরাধীদের পক্ষের বিভিন্ন কর্মসূচীর সচিত্র প্রতিবেদন ফলাও করে প্রচার করে তাদের উৎসাহিত করেছে।

এছাড়া নিউইয়র্কে মুসলিম উম্মাহ অব নর্থ আমেরিকা (মুনা) ও জামায়াতী বুদ্ধিজীবীরা তুরস্ক ও পাকিস্তানী দূতাবাসের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রেখে বাংলাদেশে শেখ হাসিনা সরকারের বিরুদ্ধে ক্রমাগত অপপ্রচার করে যাচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুধু তাই নয় জাতিসংঘ মিডিয়া সেন্টার ও নিউইয়র্ক ফরেন প্রেস সেন্টারে নিজেদের বেতনভোগী লোক নিয়োগ করে বাংলাদেশ সরকারকে বিব্রত করার মতো প্রশ্ন করানো হচ্ছে এবং তা থেকে সরকার ও দেশবিরোধী সংবাদ তৈরি করে তাদেরই সৃষ্ট কিছু অনলাইন মিডিয়া নিমিষেই তা প্রচার করছে, তারপরই তা বাংলাদেশে জামায়াত-যুদ্ধাপরাধী সমর্থক মিডিয়াগুলো লুফে নিয়ে প্রচার করছে।

এই মাত্রা পাওয়া