১৬ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজধানীতে ২ কোটি টাকার বিক্রি নিষিদ্ধ ওষুধ জব্দ

  • ছয়জনকে জেল-জরিমানা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিক্রি নিষিদ্ধ গরু মোটাতাজাকরণ, যৌন উত্তেজক ও সরকারী হাসপাতালের ওষুধসহ বিভিন্ন ভারতীয় ওষুধ বিক্রির দায়ে রাজধানীর কোতোয়ালি থানাধীন বাবুবাজারের ছয়জনকে জেল-জরিমানা করেছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম এ আদেশ প্রদান করেন। শনিবার বাবুবাজারের আলী চেয়ারম্যান মেডিসিন মার্কেটে এ অভিযান চালায় র‌্যাব-১০ ও ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের যৌথ উদ্যোগে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় উপস্থিত ছিলেনÑ সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ রেজাউল করিম পিপিএম, ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের ঔষধ তত্ত্বাবধায়ক সৈকত কুমার কর, মাহবুব হোসেন ও নিপা চৌধুরী।

অভিযানের সময় সেবা মেডিক্যাল হলের গোডাউন থেকে সরকারী হাসপাতালে বিনামূল্যে বিতরণযোগ্য বিক্রয় নিষিদ্ধ প্রোভেরা ইঞ্জেকশনসহ ভারতীয় ওষুধ পেরিয়াকটিন, গাইনিকোসাইড, কুইন ভ্যাক্সেন, টিটাগাম, সিয়ালিস, টেট্রাক্স, ওনাগ্রা, হটেগ্রা, টারগেট, ডানো টিটি ভ্যাক্সিন, ম্যাক্সম্যান নামীয় বিপুল ওষুধ এবং ঘনচিনি জব্দ করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সমস্ত অপরাধের কারণে সেবা মেডিক্যাল হলের মালিক সালাউদ্দিনকে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদ- দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এছাড়া একই মার্কেটে শিমন ড্রাগ হাউসে অভিযান চালিয়ে ৫ প্রকারের বিপুল পরিমাণ সরকারী ও বিক্রয়নিষিদ্ধ ভারতীয় ওষুধ জব্দ করা হয়। সরকারী ওষুধের উৎস এবং সরবরাহকারী কারাÑ এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানের মালিক পারভেজ আলমকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে কোন সদুত্তর না দিয়ে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। আদালত একই ধরণের অভিযোগে শিমন ড্রাগ হাউসের মালিক পারভেজ আলমকে দেড় বছরের জেল ও অন্নি মেডিক্যাল হলের মালিক মমিন উল্ল্যাহ্কে ৯ মাসের কারাদ- প্রদান করা হয়। তাছাড়া বিক্রয় নিষিদ্ধ ওষুধ বিক্রির দায়ে রায়হান মেডিসিন কর্নারের মালিক রায়হানকে দেড় লাখ টাকা, রিপন মেডিসিন হাউসের মালিক মোঃ আরিফ হোসেন রিপনকে তিন লাখ টাকা এবং ইসলামিয়া মেডিক্যাল ফার্মার মালিক বাবুল হোসেনকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় ছয়টি প্রতিষ্ঠান থেকে প্রায় দুই কোটি টাকা মূল্যের সরকারী ও বিক্রয় নিষিদ্ধ ওষুধ জব্দ করা হয়।