১৭ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নীলফামারীতে এক ভিক্ষুক নারীর আত্নহত্যা

স্টাফ রির্পোটার,নীলফামারী॥ টুল্লি বেগম (৫০) নামের এক ভিক্ষুক নারী গলায় দড়ি দিয়ে আতœহত্যা করেছে। শনিবার রাতে ঘটনাটি ঘটে নীলফামারীর কিশোরীগঞ্জ উপজেলার বাহাগিলি ইউনিয়নের উত্তর দুরাকুটি গ্রামে। নিহত টুল্লি ওই গ্রামের মৃত তফেল উদ্দিনের অবিবাহিত মেয়ে। আজ রবিবার সকালে প্রশাসনের অনুমতি ক্রমে ময়না তদন্ত ছাড়াই তাকে দাফন করা হয় গ্রামের কবরস্থানে।

কিশোরীগঞ্জ থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান জানান টুল্লির বাবা মা কেউ বেঁচে নেই। তারা দুই বোন। অপর বোন রাবেয়া(৫২) বাক প্রতিবন্ধী। দুই বোনই ভিক্ষা করে চলতো। সম্প্রতিকালে উপজেলাকে ভিক্ষুক মুক্ত করা হয়। সেই সাথে উপজেলার প্রায় দেড় হাজার ভিক্ষুককে পুনঃবাসিত করা হয়। তাদের মধ্যে এই দুই বোন রয়েছে। তাদের ছাগল,হাঁসমুরগী ও ক্ষুদ্র ব্যবসার জন্য ৫ হাজার টাকা করে দেয় উপজেলা প্রশাসন। সুত্র মতে পেটের ব্যথা সহ্য করতে না পেরে ঘটনার দিন রাতে টুল্লি বাড়ির পার্শ্বে কাঠাল গাছে গলায় দড়ি দিয়ে আতœহত্যা করে। এ ঘটনায় থানায় ইউডি মামলা ও প্রশাসনের অনুমতি ক্রমে ময়না তদন্ত ছাড়াই লাশ দাফন করা হয়।