১৮ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কুয়াকাটার ২০ শয্যার হাসপাতালের চিকিৎসাসেবা টানা ছয়দিন বন্ধ

কুয়াকাটার ২০ শয্যার হাসপাতালের চিকিৎসাসেবা টানা ছয়দিন বন্ধ

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া ॥ টানা ছয়দিন ধরে কুয়াকাটার ২০ শয্যার হাসপাতালের পয়োজনীয় চিকিৎসাসেবা বন্ধ রয়েছে। কবে নাগাদ পুরোপুরি চালু হবে তা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুল মান্নানও জানাতে পারেন নি। ফলে প্রতিদিন কুয়াকাটা পর্যটন এলাকার মানুষ চিকিৎসা নিতে এসে যথাযথ চিকিৎসাসেবা ছাড়াই ফিরে যাচ্ছে। একমাত্র চিকিৎসক কামরুজ্জামান ছুটিতে থাকায় ওই হাসপাতালের চিকিৎসাসেবার এমন বেহাল দশা হয়েছে। জানা গেছে, ২০ জুন থেকে হাসপাতালটিতে চিকিৎসাসেবা বন্ধ রয়েছে। হাসপাতালে এক অগ্নিদগ্ধ রোগীর চিকিৎসায় অবহেলার কারণে রোগীর স্বজনরা কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. কামরুজ্জামানকে লাঞ্চিত করে। এ ঘটনায় ওই ডাক্তার রোগীর বাবা জাকির ফকিরের বিরুদ্ধে মহীপুর থানায় মামলা করেই ছুটিতে চলে যায়। তখন থেকেই হাসপাতালে জরুরী বিভাগসহ ইনডোর ও আউটডোরের চিকিৎসা বন্ধ হয়ে যায়। চিকিৎসা সেবা চালু রাখতে মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের স্বাস্থ্য সহকারী (সেকমো) সালমা বেগম অতিরিক্তি দায়িত্ব দেয়া হয়। এখন তাকে দিয়ে জোড়াতালি দিয়েই চলছে নামেই চিকিৎসাসেবা। তিনি জানান, কোনমতে আউটডোর সামাল দিচ্ছি।

পটুয়াখালী জেলা সিভিল সার্জন ডা. মো. সেলিম মিয়া জনকন্ঠকে জানান, রোগীর স্বজনদের হাতে এক ডাক্তার লাঞ্চিতের ঘটনায় অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। তবে হাসপাতালের চিকিৎসাসেবা বন্ধ রাখা যাবে না। তিনি খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান।