২৮ জুন ২০১৬

বরিশালে পুলিশের ছেড়ে দেয়া অস্ত্র বিক্রেতা ডিবির হাতে আটক

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ অস্ত্র ও মাদক বিক্রেতাদের আটকের জন্য জেলার উজিরপুর থানা পুলিশের রাতভরের অভিযানে ইউএসএ’র তৈরী একটি নাইন এমএম পিস্তল, ম্যাগজিন ভর্তি গুলি ও শতাধিক পিস ইয়াবাসহ পর্যায়ক্রমে আটক করা হয় হত্যাসহ একাধিক মামলার আসামি ছয় শীর্ষ সন্ত্রাসীকে। থানা পুলিশের দিনভরের নানা নাটকীয়তার পর দুই সন্ত্রাসীকে আটকের পর ছেড়ে দেয়া হয়। বিষয়টি পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নজরে আসলে ছেড়ে দেয়ার চার ঘন্টা পর শিপন মোল্লা ও খবির হাওলাদার ছেড়ে দেয়া দুই সন্ত্রাসীকে ফের আটক করে জেলা গোয়েন্দা ডিবি পুলিশ।

সোমবার রাতে জেলা গোয়েন্দা ডিবি পুলিশের ওসি মোঃ শাহাবুদ্দিন চৌধুরী আটকের সত্যতা স্বীকার করে জানান, উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নির্দেশে আটককৃতদের ডিবি অফিসে নিয়ে আসা হয়েছে। থানা পুলিশের একাধিক সূত্রে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রবিবার মধ্যরাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে উজিরপুরের গুঠিয়া এলাকার তেরদ্রন গ্রাম থেকে চিহ্নিত অস্ত্র বিক্রেতা ও মাদক সম্রাট আনিসুর রহমান আনিস ও আসাদকে আটক করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ওইরাতেই আটক করা হয় আরেক অস্ত্র বিক্রেতা আলামিন ও ইসমাইল হোসেনকে। আটককৃতদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী পুলিশ ইউএসএ’র তৈরী একটি নাইন এমএম পিস্তল, এক রাউন্ড গুলি ও শতাধিক পিস ইয়াবা উদ্ধার করেন। জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা জানায়, তাদের আরেকটি অস্ত্র উজিরপুরের আরেক শীর্ষ সন্ত্রাসী শিপন মোল্লার কাছে রয়েছে। তদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী সোমবার সকালে থানা পুলিশ শিপন ও তার ঘনিষ্ঠ সহযোগী খবির হাওলাদারকে আটক করলেও বিষয়টি গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে পুরোপুরি অস্বীকার করা হয়। আটককৃতরা সবাই শিপন মোল্লার ক্যাডার।