২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পুঁজিবাজারে লেনদেন বেড়েছে ১০ শতাংশ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মঙ্গলবার মূল্য সূচকের উর্ধগতিতে লেনদেন শেষ হয়েছে। ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ শেয়ারের দর বেড়েছে। এই নিয়ে চলতি সপ্তাহে টানা তৃতীয় দিনে সূচকের উর্ধগতির মধ্যে দিয়ে লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন ডিএসইতে আগের দিনের চেয়ে প্রায় ১০ শতাংশ লেনদেন বেড়েছে।

বাজার বিশ্লেষকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ঈদ-উল-ফিতরের ছুটির ঠিক আগ মুহূর্তে শেয়ার বিক্রি করে টাকা নগদায়নের আর সুযোগ না থাকায় বিনিয়োগকারীদের শেয়ার বিক্রির চাপ কমে গেছে। উল্টো গত কিছুদিন ধরে টানা পতনের কারণে বেশ কিছু কোম্পানির শেয়ার লোভনীয় পর্যায়ে এসে পৌঁছছে। ওই পর্যায়ে বিনিয়োগকারীদের কেউ কেউ শেয়ার কিনছেন, ফলে আগের তুলনায় বাজারে চাহিদা বেড়েছে। যার প্রভাবেই বাজারে সূচকে ও লেনদেন অগ্রগতি দেখা গেছে। বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, মঙ্গলবার ডিএসইতে ৩৮৮ কোটি ৬৭ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে; যা আগের দিনের তুলনায় প্রায় ৩৬ কোটি ৫৬ লাখ টাকা বেশি। সোমবার এই বাজারে ৩৫২ কোটি ১১ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছিল।

মঙ্গলবার ডিএসইতে মোট লেনদেনে অংশ নেয় ৩৫২টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২০০টির, কমেছে ৭২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৮টির শেয়ার দর।

এদিকে ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্য সূচক ৩৮ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৪ হাজার ৪৫১ পয়েন্টে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৯ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৯৫ পয়েন্টে। আর ডিএস৩০ সূচক ১৩ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে এক হাজার ৭৪০ পয়েন্টে।

ডিএসইতে দিনটিতে খাতওয়ারি লেনদেনের শীর্ষে ছিল ওষুধ এব রসায়ন খাত। সারাদিনে খাতটির মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৫৬ কোটি ৮৪ লাখ টাকা, যা মোট লেনদেনের ২১.০৫ ভাগ। এরপরে দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল প্রকৌশল খাতটি। সারাদিনে খাতটির মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৩৯ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের ১৪.৩৪ ভাগ। এরপরে তৃতীয় অবস্থানে ছিল বস্ত্র খাতটি। সারাদিনে খাতটির মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৩৪ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের ১২.৭২ ভাগ।

ডিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : একমি ল্যাবরেটরিজ, কেয়া কসমেটিকস, ইসলামী ব্যাংক, গ্রামীন ফোন, স্কয়ার ফামা, আমান ফিড, সিটি ব্যাংক, ন্যাশনাল ফিড মিলস লিমিটেড, বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেম ও অলিম্পিক এক্সেসরিজ।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) সূচকের উত্থানে লেনদেন শেষ হয়েছে। সিএসইতে ১৯ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। সিএসই সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৩৯ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৬৫১ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৪৪টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৫৪টির, কমেছে ৫৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩২টির।