১৩ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

লড়াইটা হ্যাজার্ড-বেলেরও

লড়াইটা হ্যাজার্ড-বেলেরও

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্বের সবচেয়ে দামী ফুটবলাল গ্যারেথ বেল। ৫৮ বছর পর ওয়েলসকে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের টিকেট নিশ্চিত করতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন তিনি। ইউরোপিয়ান ফুটবলের এই শ্রেষ্ঠত্বের প্রতিযোগিতার মূল মঞ্চেও দূর্বার বেল। তবে তার বড় পরীক্ষাটা আজ কোয়ার্টার ফাইনালে। সেমিফাইনালে উঠার লড়াইয়ে যে আজ গ্যারেথ বেল মাঠে নামছেন ইডেন হ্যাজার্ডের বেলজিয়ামের বিপক্ষে। ইউরোর নকআউট পর্বে হাঙ্গেরিকে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত করে বেলজিয়াম। সেই ম্যাচেই প্রথম গোল করেন চেলসির বেলজিয়ান তারকা হ্যাজার্ড। শুধু তাই নয় কোয়ার্টার ফাইনালে তুলে ম্যাচ সেরার পুরস্কারটাও জিতে নেন দুর্দান্ত ফর্মে থাকা এই স্ট্রাইকার।

গ্যারেথ বেলের ওয়েলসের সামনে তারকার হাট বেলজিয়াম। ইউরো কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে দেখা যাবে ইতিহাস গড়া ওয়েলস ও আর সোনালি প্রজন্মের বেলজিয়ামের দ্বৈরথ। তবে ওয়েলসের বিপক্ষে হ্যাজার্ডের দিকেই আলাদা করে দৃষ্টি থাকবে সমর্থকদের। হাঙ্গেরির বিপক্ষে ম্যাচের শেষেই প্রিয় শিষ্যের প্রশংসায় মেতে বেলজিয়াম কোচ মার্ক উইলমটস বলেছিলেন, ‘আমি তার (হ্যাজার্ড) কাছে এমন একটি গোল দেখতে চেয়েছিলাম। একজন অধিনায়ককে কেবল মুখে নয়, পারফর্মেন্স দিয়েও কথা বলতে হয়।’ এবারের ইউরো কাপে অন্যতম চমকটা হাঙ্গেরি দলে। হাঙ্গেরিকে ফুটবলের বড় আসরে খেলতে দেখা গেল দীর্ঘ ৩০ বছর পর। সর্বশেষ ১৯৮৬ বিশ্বকাপে খেলতে দেখা গিয়েছিল তাদের। আর সেই হাঙ্গেরিকে বিদায় করেই শেষ আটে জায়গা করে নেয় উইলমটসের দল। তবে ওয়েলসের বিপক্ষে ম্যাচটা যে সহজ হবে না সে বিষয়ে সতীর্থদের আগে থেকেই সতর্ক করে দিয়েছেন হ্যাজার্ড। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘দল হিসেবে তারা খুবই জটিল। তাদের বিপক্ষে বাছাইপর্বে মুখোমুখি হয়েছিলাম কিন্তু সেই ম্যাচে তাদের হারাতে পারিনি আমরা। আক্রমণভাগে তাদের বেলের মতো খেলোয়াড় রয়েছে। তাই তাদের বিপক্ষে ম্যাচের আগে আমাদের অবশ্যই গবেষণা করতে হবে। সেই সঙ্গে জয়ের জন্য আমাদের সেরাটা ঢেলে দিতে হবে।’ লিলে রাত ১টায় শুরু হবে ম্যাচটি। তবে ওয়েলসের বিপক্ষে মাঠে নামার জন্য তর সইছে না হ্যাজার্ডের, ‘যদিওবা লিলে কখনওই খেলিনি তবে আমি জানি স্টেডিয়াম হিসেবে লিলে খুবই ভাল। এখানে খেলাটা আমার জন্য গর্বের। তাছাড়া এই ম্যাচের আগে আমি একটি গোলও করেছি যা খুবই আনন্দের।’ ৫৫২ ফুটবলারের ট্রান্সফার ফি বিচারে এবারের ইউরোতে সবচেয়ে দামী দলের মর্যাদাটা বেলজিয়ামের। ২৩ খেলোয়াড়ের বেলজিয়াম দলের একত্রে মূল্য ৩১৮.৯ মিলিয়ন পাউন্ড। এরপরেই রয়েছে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানির নাম। জার্মানি দলের ২৩ ফুটবলারের একত্রে দাম ২৬৪.৫ মিলিয়ন পাউন্ড। ২০১৩ সালে ইংলিশ ক্লাব টটেনহ্যাম হটস্পার থেকে রেকর্ড ৮৬ মিলিয়ন পাউন্ডের ট্রান্সফারে রিয়াল মাদ্রিদে পাড়ি দেন ওয়েলস ফুটবলার গ্যারেথ বেল। বেলের দামটা ওয়েলস দলের ২৩ খেলোয়াড়ের মোট মূল্যের ৬৩%। রিয়াল মাদ্রিদের অপর ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর রেকর্ড ভাঙেন বেল। ২০০৯ সালে ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে ৮০ মিলিয়ন পাউন্ডের ট্রান্সফারে রিয়াল মাদ্রিদে পাড়ি দিয়েছিলেন সি আর সেভেন। রিয়াল মাদ্রিদের এ দুই তারকার একত্রে দামটা এবারের ইউরো কাপে ইতালি দলের মোট মূল্যের চেয়েও বেশি। তবে ইউরোতে রোনাল্ডোর চেয়েও দুর্দান্ত ফর্মে বেল। দীর্ঘ ৫৮ বছর পর ফুটবলের বড় কোন টুর্নামেন্টে খেলার সুযোগ পেয়েই নিজেকে মেলে ধরেছেন গ্যারেথ বেল। প্রমাণ করেছেন তিনি যে আসলেই কেন বিশ্বফুটবলের দামী ফুটবলারদের একজন। সেøাভাকিয়ার বিপক্ষে ইউরোর প্রথম ম্যাচের ১০ মিনিটেই গোল করে দলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। ৩০ গজ দূর থেকে ফ্রি কিকে গোল করেছিলেন ওয়েলস তারা। এরপর দ্বিতীয় ম্যাচে প্রতিবেশী ইংল্যান্ডের বিপক্ষেও তার গোলে প্রথমে এগিয়ে যায় ওয়েলস। ইংলিশদের বিপক্ষে ৪২ মিনিটে করা তার এই গোলটিও ছিল ফ্রি-কিকে!

ইউরোপিয়ান ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের মঞ্চে টানা দুই ম্যাচে ফ্রি-কিকে গোল। ইতিহাসের তৃতীয় ফুটবলার হিসেবে এই কীর্তি গড়লেন ওয়েলস তারকা গ্যারেথ বেল। তার আগে ১৯৮৪ সালে ইউরোর এক আসরের দুই ম্যাচে ফ্রি-কিকে গোল করেছিলেন মিচেল প্লাতিনি। আর ১৯৯২ ইউরোতে দ্বিতীয় ফুটবলার হিসেবে ফ্রি-কিকে দুই ম্যাচে দুই গোল করার ইতিহাস গড়েছিলেন থমাস হাসলার। তবে বেল গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচেও গোল করেছেন তিনি। আজ বেলজিয়ামের বিপক্ষেও নিশ্চিত নিজের সেরাটা ঢেলে দিতে মরিয়া রিয়াল মাদ্রিদের এই ওয়েলস তারকা।