১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

একদিকে নিউয়ের আরেক দিকে বুফন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বয়সে আটত্রিশকেও ছাড়িয়ে গেছেন জিয়ানলুইজি বুফন। কিন্তু এখনও গোলপোস্টের নিচে অতন্ত্রপ্রহরী। তার অসাধারণ কৌশলগত দক্ষতার সৌজন্যেই ২০০৬ বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ইতালি। এবার উয়েফা ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপেও আজ্জুরিদের টানছেন তিনি। তবে টুর্নামেন্টের বড় পরীক্ষাটা আজই। কেননা বোর্দোতে কোয়ার্টার ফাইনালেই যে, জার্মানির বিপক্ষে মাঠে নামছে বুফনের ইতালি।

ইতালির একমাত্র গোলরক্ষক হিসেবে বিশ্বকাপ ও ইউরোপ সেরার লড়াইয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার রেকর্ড আছে কেবল ডিনো জফের। এবার সেই রেকর্ডে ভাগ বসানোর দারুণ সুযোগ বুফনের। সেক্ষেত্রে আরও তিনটি ম্যাচ জিততে হবে জুভেন্টাসের এই গোলরক্ষককে। তবে বড় বাধাটা আজই। দেশটির সাবেক কিংবদন্তি গোলরক্ষক ডিনো জফের বিশ্বাস বুফন পারবেন। এ প্রসঙ্গে ম্যাচের আগে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি সে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে সফল হতে পারবে। কেননা এখনও দুর্দান্ত খেলছে সে।’ তবে ডিনো জফ ম্যানুয়েল নিউয়েরকেও গুরুত্ব দিচ্ছেন আলাদা করে। তার মতে নিউয়ের এবং বুফন দুজনই স্ব স্ব ক্ষেত্রে চ্যাম্পিয়ন। তাই তাদের আলাদা করে তুলনা করেননি তিনি। এ প্রসঙ্গে জফ বলেন, ‘এই টুর্নামেন্টে তো অবশ্যই তারা সেরা গোলরক্ষক। এমনকি এর বাইরেও দুর্দান্ত তারা। এই দুইজনকে আমি কখনই কোন তুলনা করতে পারব না কারণ তাদের নিজেদের স্টাইলে দুজনই চ্যাম্পিয়ন।’ এবারের ইউরোর প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালের সমাপ্তি ঘটে টাইব্রেকারে। যেখানে পোল্যান্ডকে হারিয়ে শেষ চারে জায়গা করে নেয় পর্তুগাল। তবে ডিনোর বিশ্বাস ইতালি-জার্মানির ম্যাচ নির্ধারিত সময়েই ফল পেয়ে যাবে।

বুফন যেমন ইতালি আর জুভেন্টাসের সাফল্যের নৈপথ্যে কাজ করে যাচ্ছেন তেমনি জার্মানি আর বেয়ার্ন মিউনিখের ক্ষেত্রে ম্যানুয়েল নিউয়ের। ২০১৪ বিশ্বকাপে তার অসাধারণ সেভের সৌজন্যেই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে জার্মানি। সেবার ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট হয়েছিলেন নিউয়ের। শুধু তাই নয়, সে বছর ফিফা ব্যালন ডি’অরের সেরা তিনের তালিকাতেও জায়গা করে নিয়েছিলেন ৩০ বছর বয়সী এই জার্মান গোলরক্ষক। বিশ্বকাপ জয়ের পর এবার তার সামনেও ইউরোর শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট পরার সুযোগ রয়েছে। সেক্ষেত্রে বুফনের সমান তাদেরও আরও তিনটি ম্যাচ জিততে হবে। তবে গোলরক্ষক হিসেবে বুফন এবং নিউয়েরকে সমান দৃষ্টিতে দেখছেন জার্মানির গোলকিপিং কোচ আন্দ্রেয়াস কোপ বলেন, ‘তারা দুজনই শীর্ষসারির গোলরক্ষক। টুর্নামেন্টেরও সেরা। রক্ষণভাগকে দারুণভাবে নিয়ন্ত্রণ করেন তারা, মোটকথা দুুই দলের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ ম্যানুয়েল নিউয়ের এবং জিয়ানলুইজি বুফন।’