১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রংপুরের আরিফ প্রধান মন্ত্রীকে জিম্মি করতে চায়

রংপুরের আরিফ প্রধান মন্ত্রীকে জিম্মি করতে চায়

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ জঙ্গির খাতায় নাম লিখিয়ে সর্বপ্রথম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জিম্মি করতে চাওয়া গ্রেফতারকৃত আরিফ ফয়সাল জোনায়েদ চৌধুরী (১৯) নামের এই কলেজ ছাত্রকে নিয়ে রংপুরে তোলপাড় সৃস্টি করেছে। তার ফেসবুক আইডিতে আরিফ যে স্ট্যাটাস লিখেছে তা অত্যান্ত ভয়ংকর সব উক্তি ছিল বলে পুলিশ জানিয়েছে। তার সেই ফেসবুক স্ট্যাটাসের কপি সংগ্রহ করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায় আরিফ রংপুরের মাহিগঞ্জ ২৯ নম্বর ওয়াডের শেঠিয়ার মোড় মহল্লার আকরাম হোসেন চৌধুরীর ছেলে এবং মাহিগঞ্জ কলেজের অর্নাসের ব্যবস্থাপনা বিভগের প্রথম বর্ষের ছাত্র। পুলিশেল ধারনা আরিফ রংপুরের ২৯ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ স¤পাদক হলেও সে জামায়াত শিবিরের সাথে জড়িত।

পুলিশ জানায় আরিফ তার ফেসবুকের আইডিতে যে স্ট্যাটাস দিয়েছে তার মধ্যে রয়েছে আমি(আরিফ ফয়সাল জোনায়েদ চৌধুরী) যদি জঙ্গী হতাম তাহলে সর্ব প্রথম প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জিম্মি করতাম। এ ছাড়া সে রংপুরের বেশ কিছু আওয়ামী লীগ নেতাদের হুমকী দেয় তার স্ট্র্যাটাসে।

পাশাপাশি সে ফেসবুকে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী মেজর ডালিমকে স্মরন করে বঙ্গবন্ধু সর্ম্পকে কটুক্তি করে।

সোমবার (৪ জুলাই) আরিফ কে পুলিশ আদালতের মাধ্যমে রংপুর কারাগারে প্রেরন করলেও এলাকাবাসী তাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার নিকট থেকে গোপন তথ্য বের করার জন্য পুলিশের কাছে দাবি করেছে।

পুলিশ সুত্র মতে এ ঘটনায় রংপুর কোতয়ালী থানায় আরিফের বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা হয়েছে। মামলার বাদী হয়েছেন রংপুর মহানগর আওয়ামী লীগের ২৯ নম্বর ওয়াডের সাধারন সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান।

সুত্র মতে রাজধানী ঢাকার গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারি রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার ঘটনার পর গত ৩ জুলাই সন্ধ্যায় আরিফ ফয়সাল জোনায়েদ চৌধুরী তার ব্যবহৃত ফেসবুক আইডিতে বঙ্গবন্ধু এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং তার রাজনৈতিক দল স¤পর্কে এবং রংপুরের আওয়ামী লীগ নেতাদের বিরুদ্ধে কটুক্তিমূলক কথা ও হুমকী দিয়ে দিয়ে ষ্ট্যাটাস দেয়।

বিষয়টি রংপুরে প্রচার পেলে গত রবিবার রাতে রংপুরের মাহিগঞ্জ ২৯ নম্বর ওয়াডের শেঠিয়ার মোড় মহল্লার বাড়ী হতে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

রংপুর কোতয়ালী থানায় ওসি এবিএম জাহিদুল ইসলাম ঘটনার কথা নিশ্চিত করে জানায় গ্রেফতাকৃত ব্যাক্তির বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা হয়েছে। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করা হচ্ছে।